পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষরক্ষা ›8ዓ চন্দ্রকান্ত। ফোটোগ্রাফ সঙ্গেই এনেছি, কিন্তু এতে আমাদের তিন জনেরই ছবি आोटझ । 尊 নিবারণ। তা হোক, ছবিটি দিব্যি উঠেছে, এতেই কাজ চলবে। . চন্দ্রকান্ত । তা হলে আজ্ঞা হয় তো আসি । [ প্রস্থান নিবারণ। নাং, লোকটার বিদ্যে আছে । বাচা গেল, একটি মনের মতো সৎপাত্র পাওয়া গেল। কমলের জন্ত আমার বড়ো ভাবনা ছিল । ইন্দুর প্রবেশ ইন্দু। বাবা, তোমার হল ? নিবারণ। ও ইন্দু, তুই তো দেখলি নে— তোরা সেই যে বিনোদবাবুর লেখার এত প্রশংসা করিস, তিনি আজ এসেছিলেন। ইন্দু। আমার তো খেয়েদেয়ে আর কাজ নেই, তোমার এখানে ষত রাজ্যির অকেজো লোক এসে জোটে আর আমি আড়াল থেকে লুকিয়ে লুকিয়ে তাদের দেখি ! আচ্ছা বাবা, চন্দ্রবাবু বিনোদবাৰু ছাড়া আর একটি যে লোক এসেছিল— বদ-চেহারা লক্ষ্মীছাড়ার মতো দেখতে, চোখে চশমা-পরা, সে কে ? নিবারণ। তুই যে বলছিলি আড়াল থেকে দেখিস নে ? বাচেহারা আবার কার দেখলি ? বাবুট তো দিব্যি ফুটফুটে কাতিকের মতো দেখতে। তার নামটি কী জিজ্ঞাসা করা হয় নি। ইন্দু। তাকে আবার ভালো দেখতে হল ? দিনে দিনে তোমার কী ষে পছন্দ হচ্ছে বাবা ! এখন নাইতে চলে – [ নিবারণের প্রস্থান না, ওঁর নামটা জানতে হচ্ছে। নিশ্চয় ক্ষান্তদিদি বলতে পারবেন — বাবা, শোনো শোনো । , [ নিবারণের পুনঃপ্রবেশ ওরা তোমাকে বিনোদবাবুর একটা ফোটোগ্রাফ দিয়ে গেল না ? নিবারণ। ই, এতে তিন বন্ধুরই ছবি আছে। ইন্দু। তাতে ক্ষতি নেই। ওটা আমাকে দাও-না, আমি দিদিকে দেখাব। নিবারণ। ভেবেছিলুম, আমি নিজে দেখাব। ইন্দু। না বাবা, আমি দেখাব, বেশ মজা হবে। নিবারণ। এই নে মা, কিন্তু ওকে নিয়ে বেশি ঠাট্টা করিস নে।