পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


❖ ዓ © রবীন্দ্র-রচনাবলী ডেকে আনলুম ছাতার আর-এক শরিক— আজ আমার কাধেও জল পড়ছে, তার কাধেও। জিনিসটা ঘোরতর অস্বাস্থ্যকর হয়ে উঠেছে। গদাই । কিন্তু ভুলটা তো তোমারই । বিনোদ । ভুলটা হচ্ছে ভুল, আর অ-ভুলটা হচ্ছে অ-ভুল, তা সে আমারই হোক আর তোমারই হোক। মোজাট হচ্ছে মোজা, পাগড়িটা হচ্ছে পাগড়ি । ভুল করে মোজাটাকে যদি পাগড়ি করেই পরি তা হলে আমি ভুল করেছি বলেই মোজাটা কি পাগড়ি হয়ে উঠবে। গদাই । (স্বগত) সর্বনাশ ! এ আবার হঠাং মোজার কথা তোলে কেন ? খবর পেয়েছে নাকি ? সেদিন যখন মোজাজোড়া মাথায় জড়িয়ে বসেছিলুম হয়তো কোথা দিয়ে দেখে থাকবে । ( প্রকাশ্বে ) ওহে মোজা নিয়ে ভুল করলেও তাতে মোজার বুক ফাটে না, বড়োজের সেলাই ফেসে যেতে পারে । কিন্তু মানুষকে নিয়ে ভুল করে তার পরে ঐ যা বলে সরে দাড়ালে তো চলে না। চন্দ্রকান্ত । বকবিকি করে লাভ কী গদাই ? এখন বলে বিনোদ, কর্তব্য কী । বিনোদ । আমি তাকে তার বাপের বাড়িতে পাঠিয়ে দিয়েছি। চন্দ্রকান্ত । তুমি নিজে চেষ্টা করে? না তিনি রাগ করে গেছেন ? বিনোদ । না, আমি তাকে একরকম বুঝিয়ে দিলুম— চন্দ্রকান্ত। যে, এখানে তিনি টিকতে পারবেন না। তুমি সব পার বিহু। আজ আমার মনটা কিছু অস্থির আছে, আজ আর থাকতে পারছি নে । [ প্রস্থান তৃতীয় দৃশ্য নিবারণের বাসা : ইন্দু ও কমল কমল । না ভাই ইন্দু, ওরকম করে তুই বলিস নে । ইন্দু। কিরকম করে বলতে হবে ? বলতে হবে, স্ত্রীর ভরটুকুও সইতে পারেন না, বিনোদবিহারী এত বড়োই শৌখিন কবি ! ৰ্তার বড়োজোর সহ হয় ফিকে চাঁদের আলো, কিম্বা ঝরা ফুলের গন্ধ। আমি ভাবছি তোর মতো মেয়েকেও সইতে পারল না ওর রুচিটি এতই ফিনফিনে, আর তুই যে ওর মতো পুরুষকেও সহ্য করতে পারছিস তোর রুচিকে বাহাদুরি দিই ।