পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


› ዓb” রবীন্দ্র-রচনাবলী ইন্দু ও কমলের প্রবেশ কমল। তোর জালায় তো আর বঁচি নে ইন্দু! তুই আবার এ কী জটা পাকিয়ে বসে আছিস । ললিতবাবুর কাছে তোকে কাদম্বিনী বলে উল্লেখ করতে হবে নাকি ? ইন্দু। তা কী করব দিদি ! কাদম্বিনী না বললে যদি সে না চিনতে পারে তা হলে ইন্দু বলে পরিচয় দিয়ে লাভটা কী ? কমল। ইতিমধ্যে তুই এত কাণ্ড কর্থন করে তুললি, তা তো জানি নে। একটা ষে আস্ত নাটক বানিয়ে বসেছিস । ইন্দু। তোমার বিনোদবাবুকে বোলো, তিনি লিখে ফেলবেন এখন, তার পর মেট্ৰপলিটান থিয়েটারে অভিনয় দেখতে যাব । ওই ভাই, তোমার বিনোদবাবু আসছেন, আমি পালাই । [ প্রস্থান বিনোদের প্রবেশ বিনোদ । মহারানী, আমার বন্ধু এলে কোথায় তাকে বসাব ? কমল । এই ঘরেই বসাবেন। বিনোদ । ললিতের সঙ্গে আপনার যে বন্ধুর বিবাহ স্থির করতে হবে তার নামটি কী ? কমল। কাদম্বিনী— বাগবাজারের চৌধুরীদের মেয়ে। বিনোদ । আপনি যখন আদেশ করছেন আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করব । কিন্তু ললিতের কথা আমি কিছুই বলতে পারি নে। সে যে এ-সব প্রস্তাবে আমাদের কারে কথায় কর্ণপাত করবে, এমন বোধ হয় না । কমল। আপনাকে সেজন্তে বোধ হয় বেশি চেষ্টা করতেও হবে না— কাদম্বিনীর নাম শুনলেই তিনি আর বড়ো আপত্তি করবেন না । বিনোদ । তা হলে তো আর কথাই নেই। কমল । মাপ করেন যদি, আপনাকে একটা কথা জিজ্ঞাসা করতে চাই । বিনোদ। এখনি। (স্বগত) স্ত্রীর কথা না তুললে বাচি । কমল। আপনার স্ত্রী নেই কি ? বিনোদ । কেন বলুন দেখি ? স্ত্রীর কথা কেন জিজ্ঞাসা করছেন ? কমল। আপনি তো অনুগ্রহ করে এই বাড়িতেই বাস করছেন, তা, আপনার স্ত্রীকে আমি আমার সঙ্গিনীর মতো করে রাখতে চাই। অবিপ্তি, যদি আপনার কোনো আপত্তি না থাকে।