পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sమ\9 ब्ररीौटम-ब्रफ़नांतलौ জালালে না । এখানে কোনো কাজেরই একটা বিলিব্যবস্থা নেই— সমস্ত বেবন্দোবন্ত । নিবারণ, ভাই, তুমি একটু ঠাণ্ড হয়ে বোসো দেখি– ব্যস্ত হয়ে বেড়ালে কোনো কাজই হয় না। আঃ, বেটাদের কেবল ফাকি ! বেহার বেটারা সব পালিয়েছে দেখছি, আচ্ছা করে তাদের কানমলা না দিলে— নিবারণ। পালিয়েছে নাকি ! কী করা যায় ? শিবচরণ। ব্যস্ত হোয়ো না ভাই– সব ঠিক হয়ে যাবে। বড়ো বড়ো ক্রিয়া কর্মের সময় মাথা ঠাণ্ড রাখা ভারি দরকার। কিন্তু এই রেধো বেটার সঙ্গে তো আর পারি নে ! আমি তাকে পইপই করে বললুম তুমি নিজে দাড়িয়ে থেকে লুচি ভাজিয়ো, কিন্তু কাল থেকে হতভাগা বেটার চুলের টিকি দেখবার জো নেই! লুচি যেন কিছু কম পড়েছে বোধ হচ্ছে । নিবারণ। বলে কী শিবু তা হলে তো সর্বনাশ ! শিবচরণ। ভয় কী দাদা ! তুমি নিশ্চিন্ত থাকে, সে আমি করে নিচ্ছি। একবার রাধুর দেখা পেলে হয়, আচ্ছা করে শুনিয়ে দিতে হবে। চন্দ্রকান্ত বিনোদ প্রভৃতির প্রবেশ নিবারণ। আহার প্রস্তুত চন্দ্রবাবু, কিছু খাবেন চলুন। চন্দ্রকান্ত । আমাদের পরে হবে, আগে সকলের হোক । শিবচরণ। না না, একে একে সব হয়ে যাক। চলো চন্দর, তোমাদের খাইয়ে আনি গে। নিবারণ, তুমি কিছু ব্যস্ত হোয়ে না, আমি সব ঠিক করে নিচ্ছি। কিন্তু, লুচিটা কিছু কম পড়বে বোধ হচ্ছে। নিবারণ। তা হলে কী হবে শিৰু! শিবচরণ। ওই দেখো ! মিছিমিছি ভাব কেন ? সে সব ঠিক হয়ে যাবে। এখন কেবল সন্দেশগুলো এসে পৌছলে বাচি । আমার তো বোধ হচ্ছে, ময়রা বেটা বায়ন নিয়ে ফাকি দিলে । 源 নিবারণ। বলে কী ভাই ! শিবচরণ। ব্যস্ত হোয়ো না । আমি সব দেখে শুনে নিচ্ছি। [ শিবচরণ ও নিবারণের প্রস্থান চন্দ্রকান্ত । ওরে বিহু, খাবার লোভে চলেছিস বুঝি ? বিনোদ । কেন, তোমার লোভ একেবারে নেই নাকি ? চন্দ্রকান্ত । কাজ আছে যে |