পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষরক্ষা গান। প্রথমে চন্দ্ৰকান্ত পরে সকলে মিলিয়া বাউলের স্বর যার অদৃষ্টে যেমনি জুটেছে সেই আমাদের ভালো । আমাদের এই আঁধার ঘরে সন্ধ্যাপ্রদীপ জালো । কেউ-বা অতি জলজল, কেউ-বা মান ছলছল— কেউ-বা কিছু দহন করে, কেউ-বা স্নিগ্ধ আলো । নূতন প্রেমে নূতন বধূ আগাগোড়া কেবল মধু, পুরাতনে অম্ল-মধুর— একটুকু বর্ণঝালো । বাক্য যখন বিদায় করে চক্ষু এসে পায়ে ধরে, রাগের সঙ্গে অনুরাগে সমান ভাগে ঢালো । আমরা তৃষ্ণ তোমরা সুধা, তোমরা তৃপ্তি আমরা ক্ষুধা, তোমার কথা বলতে কবির কথা ফুরালো । ষে মূর্তি নয়নে জাগে সবই আমার ভালো লাগে— কেউ-বা দিব্যি গৌরবরন, কেউ-বা দিব্যি কালো । ఏఏ