পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२१० রবীন্দ্র-রচনাবলী কিন্তু অনতিবিলম্বে শরৎ এবং তাহার মাতার মত পরিবর্তন হইতে লাগিল । র্তাহারা ভাবিলেন, আর আবখ্যক নাই, এখন এই ছেলেটাকে বিদায় করিতে পারিলে আপদ স্বায় । নীলকান্ত গোপনে শরতের গুড়গুড়িতে ফড, ফৰ্ড শব্দে তামাক টানিতে আরম্ভ করিল। বৃষ্টির দিনে অমানবদনে তাহার শখের সিদ্ধের ছাতাটি মাথায় দিয়া নববন্ধুসঞ্চয়চেষ্টায় পল্লীতে পর্যটন করিতে লাগিল। কোথাকার একটা মলিন গ্রাম্য কুকুরকে আদর দিয়া এমনি স্পর্ধিত করিয়া তুলিল যে, সে অনাহূত শরতের মুসজ্জিত ঘরের মধ্যে প্রবেশ করিয়া নির্মল জাজিমের উপর পদপল্লবচতুষ্টয়ের ধূলিরেখায় আপন শুভাগমনসংবাদ স্থায়ীভাবে মুদ্রিত করিয়া আসিতে লাগিল। নীলকাস্তের চতুর্দিকে দেখিতে দেখিতে একটি স্ববৃহৎ ভক্তশিশুসম্প্রদায় গঠিত হইয়া উঠিল, এবং সে-বৎসর গ্রামের আম্রকাননে কচি আম পাকিয়া উঠিবার অবসর পাইল না । কিরণ এই ছেলেটিকে বড়ো বেশি আদর দিতেন, তাহাতে সন্দেহ নাই। শরং এবং শরতের মা সে বিষয়ে তাহাকে অনেক নিষেধ করিতেন, কিন্তু তিনি তাহ মানিতেন না। শরতের পুরাতন জাম মোজা এবং নূতন ধুতি চাদর জুতা পরাইয়া তিনি তাহাকে বাবু সাজাইয়া তুলিলেন। মাঝে মাঝে যখন তখন তাহাকে ডাকিয়া লইয়া তাহার স্নেহ এবং কৌতুক উভয়ই চরিতার্থ হইত। কিরণ সহাস্যমুখে পানের বাটা পাশে রাখিয়া খাটের উপর বসিতেন, দাসী তাহার ভিজে এলোচুল চিরিয়া চিরিয়া ঘষিয়া ঘষিয়া শুকাইয়া দিত এবং নীলকাস্ত নীচে দাড়াইয়া হাত নাড়িয়া নলদময়ন্তীর পালা অভিনয় করিত– এইরূপে দীর্ঘ মধ্যাহ্ন অত্যন্ত শীঘ্ৰ কাটিয়া যাইত । কিরণ শরংকে তাহার সহিত একাসনে দর্শকশ্রেণীভূক্ত করিবার চেষ্টা করিতেন, কিন্তু শরং অত্যন্ত বিরক্ত হইতেন এবং শরতের সম্মুখে নীলকাস্তের প্রতিভাও সম্পূর্ণ স্কৃতি পাইত না । শাশুড়ি এক একদিন ঠাকুর-দেবতার নাম শুনিবার আশায় আকৃষ্ট হইয়া আসিতেন কিন্তু অবিলম্বে র্তাহার চিরাভ্যস্ত মধ্যাহ্নকালীন নিদ্রাবেশ ভক্তিকে অভিভূত এবং তাহাকে শয্যাশায়ী করিয়া দিত । শরতের কাছ হইতে কানমলা চড়টা চাপড়টা নীলকাস্তের অদৃষ্টে প্রায়ই জুটিত ; কিন্তু তদপেক্ষা কঠিনতর শাসনপ্রণালীতে আজন্ম অভ্যস্ত থাকাতে সেটা তাহার নিকট অপমান বা বেদনাজনক বোধ হইত না। নীলকাস্তের দৃঢ় ধারণা ছিল যে, পৃথিবীর জলস্থলবিভাগের স্তায় মানবজন্মটা আহার এবং প্রহারে বিভক্ত ; প্রহারের অংশটাই অধিক । so নীলকাস্তের ঠিক কত বয়স নির্ণয় করিয়া বলা কঠিন ; যদি চোদ-পনেরো হয় তবে