পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী কানে তার বলে গেছে যে কথাটি তারি স্মৃতি আজো ধরণীর মাটি দিকে দিকে বিকাশিছে ঘাসে ঘাসে— তারি পানে চেয়ে চেয়ে সেই স্বর কানে আসে । প্রাণের প্রথমতম কম্পন অশথের মজ্জায় করিতেছে বিচরণ, তারি সেই ঝংকার ধ্বনিহীন— আকাশের বক্ষেতে কেঁপে ওঠে নিশিদিন ; মোর শিরা তন্তুতে বাজে তাই ; স্বগভীর চেতনার মাঝে তাই নর্তন জেগে ওঠে অদৃশু ভঙ্গীতে অরণ্যমর্মর-সংগীতে । ওই তরু ওই লতা ওরা সবে মুখরিত কুসুমে ও পল্লবে— সেই মহাবাণীময় গহন মৌনতলে নির্বাক স্থলে জলে শুনি আদি ওংকার, শুনি মূক গুঞ্জন অগোচর চেতনার । ধরণীর ধূলি হতে তারার সীমার কাছে কথাহারা যে ভুবন ব্যাপিয়াছে তার মাঝে নিই স্থান, চেয়ে-থাকা জুই চোখে বাজে ধ্বনিহীন গান । ৮ বৈশাখ ১৩৪১ [ শাস্তিনিকেতন ]