পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


बॉर्डौ s (to &. বিচিত্র ; দেখবামাত্রই মনে হয়, অজস্তার ছবিটি । এমনতরো ৰাহুল্যৰজিত স্থপরিচ্ছন্নতার সামগুস্ত আমি কখনো দেখি নি। আমাদের নর্তকী বাইজিদের ভাটপায়জামার উপর অভ্যস্ত জবভূজঙ্গ কাপড়ের অসৌষ্ঠবতা চিরদিন আমাকে ভারি কুত্ৰ লেগেছে ! তাদের প্রচুর গয়না ঘাগর ওড়না ও অত্যন্ত ভারী দেহ মিলিয়ে প্রথমেই মনে হয়, সাজানো একটা মন্ত বোঝা । তার পরে মাঝে মাঝে বাট থেকে পান খাওয়া, অন্ত্রবর্তীফের সঙ্গে কথা কওয়া, ভুরু ও চোখের নানাপ্রকার ভঙ্গিমা ধিক্কারজনক বলে বোধ হয়— নীতির দিক থেকে নয়, রীতির দিক থেকে। জাপানে ও জাভাতে ৰে-নাচ দেখলুম তার সৌন্দর্য যেমন তার শালীনতাও তেমনি নিখুত। আমরা দেখলুম, এই দুটি বালিকার তন্থ দেহকে সম্পূর্ণ অধিকার করে অশরীরী নাচেরই আবির্ভাব। বাক্যকে অধিকার করেছে কাব্য, বচনকে পেয়ে বসেছে বচনাতীত । শুনেছি, অনেক যুরোপীয় দর্শক এই নাচের অতিমৃদ্ধতা ও সৌকুমার্ধ ভালোই বাসে না । তারা উগ্র মাদকতায় অভ্যস্ত বলে এই নাচকে একঘেয়ে মনে করে - আমি তো এ নাচে বৈচিত্র্যের একটু অভাব দেখলুম না ; সেটা অতি প্রকট নয় বলেই যদি চোখে না পড়ে তবে চোখেরই অভ্যাসদোষ । কেবলই আমার এই মনে হচ্ছিল ষে, এ হচ্ছে কলাসৌন্দর্যের একটি পরিপূর্ণ স্বষ্টি, উপাদানরূপে মানুষটি তার মধ্যে একেবারে হারিয়ে গেছে। নাচ হয়ে গেলে এরা যখন বাজিয়েদের মধ্যে এসে বসল তখন তারা নিতান্তই সাধারণ মাহুষ। তখন দেখতে পাওয়া যায়, তারা গায়ে রঙ করেছে, কপালে চিত্র করেছে, শরীরের অতিস্ফূতিকে নিরস্ত করে দিয়ে একটি নিবিড় সৌষ্ঠব প্রকাশের জন্তে অত্যন্ত জাট করে কাপড় পরেছে— সাধারণ মামুষের পক্ষে এ সমস্তই অসংগত, এতে চোখকে পীড়া দেয় । কিন্তু, সাধারণ মানুষের এই রূপান্তর নৃত্যকলায় অপরূপই হয়ে ওঠে । পরদিন সকালে আমরা প্রাসাদের অন্তান্ত বিভাগে ও অস্তঃপুরে আহূত হয়েছিলেম । সেখানে স্তম্ভশ্রেণীবিধৃত অতি বৃহৎ একটি সভামণ্ডপ দেখা গেল ; তার প্রকাগু ব্যাপ্তি অথচ স্থপরিমিত বাস্তুকলার সৌন্দর্য দেখে ভারি আনন্দ পেলুম। এ-সমস্তর উপযুক্ত বিবরণ তোমরা নিশ্চয় স্বরেক্সের চিঠি ও চিত্র থেকে পাবে। অন্তঃপুরে অপেক্ষাকৃত ছোটো একটি মণ্ডপে গিয়ে দেখি সেখানে আমাদের গৃহকর্তা ও গৃহস্বামিনী বসে আছেন। রানীকে ঠিক যেন একজন স্বন্দরী বাঙালী মেয়ের মতো দেখতে ; বড়ো বড়ো চোখ, স্নিগ্ধ হাসি, সংযত সৌষম্যের মর্যাদা ভারি তৃপ্তিকর । মগুপের বাইরে গাছপালা, আর নানারকম খাচায় নানা পাখি । মগুপের ভিতরে গানবাজনার, ছায়াভিনয়ের, মুখোশের অভিনয়ের, পুতুলনাচের নানা সরঞ্জাম। একটা টেবিলে বর্তিক শিল্পের כוסות צ