পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বীথিকা তারার আলোক-সাথে মিলি মোর চিত্ত ঝংকৃত তারে তারে করেছিল নৃত্য, তোমার হৃদয় নিম্পন্দ ছিল । তন্দ্রাবিহীন নীড়ে ব্যাকুল পাখি হারায়ে কাহারে বৃথা মরিল ডাকি । প্রহর অতীত হল, কেটে গেল লগ্ন, এক ঘরে তুমি ঔদান্তে নিমগ্ন, তখনো দিগঞ্চলে চন্দ্র ছিল । কে বোঝে কাহার মন । অবোধ হিয়া দিতে চেয়েছিল বাণী নিঃশেষিয়া । আশা ছিল, কিছু বুঝি আছে অতিরিক্ত অতীতের স্মৃতিখানি অশ্রতে সিক্ত— বুঝিবা নূপুরে কিছু ছন্দ ছিল। উষার চরণতলে মলিন শশী রজনীর হার হতে পড়িল খসি । বীণার বিলাপ কিছু দিয়েছে কি সঙ্গ, নিদ্রার তটতলে তুলেছে তরঙ্গ, স্বপ্নেও কিছু কি আনন্দ ছিল । ৯ শ্রাবণ ১৩৪১ শান্তিনিকেতন দানমহিমা নিঝরিণী অকারণ অবারণ মুখে নীরসেরে ঠেলা দিয়ে চলে তৃষিতের অভিমুখে— নিত্য অফুরান আপনারে করে দান ।