পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বৗখিক। এই ক্রটি দেখেছি যখন শুনি নি কি সেই সঙ্গে বিশ্বব্যাপী গভীর ক্রলন যুগে যুগে উচ্ছ্বসিতে থাকে ; দেখি নি কি আর্তচিত্ত উদবোধিয়া রাখে মামুষের ইতিবৃত্ত বেদনার নিত্য আন্দোলনে । উৎপীড়িত সেই জাগরণে তন্দ্রাহীন যে-মহিমা যাত্রা করে রাত্রির আঁধারে নমস্কার জানাই তাহারে । নানা নামে আসিছে সে নানা অস্ত্র হাতে কণ্টকিত অসম্মান অবাধে দলিয়া পদপাতে— মরণেরে হানি— · প্রলয়ের পাস্থ সেই, রক্তে মোর তাহারে আহবানি । প্রাবণ ১৩৪২ শান্তিনিকেতন রাতের দান পথের শেষে নিবিয়া আসে আলো, গানের বেলা আজ ফুরালো কী নিয়ে তবে কাটিবে তব সন্ধ্যা । রাত্রি নহে বন্ধ্যা, অন্ধকারে না-দেখা ফুল ফুটায়ে তোলে সে ষে— দিনের অতি নিঠুর খর তেজে ষে-ফুল ফুটিল না, যাহার মধুকণা বনভূমির প্রত্যাশাতে গোপনে ছিল বলে গিয়েছে কবে আকাশপথে চলে তোমার উপবনের মৌমাছি কৃপণ বনবীখিকাতলে বৃথা করুণা ৰাচি ।