পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SU8 রবীন্দ্র-রচনাবলী দেৰদত্ত ৷ সন্মতির প্রয়োজন হয় না, এতে আরবৃদ্ধি আছে । স্থমিত্রা । সত্য করে বলো, এই অর্থ রাজকোষ গ্রহণ করে ? দেবদত্ত । সেদিন সভাপণ্ডিত ব্যাখ্যা করে বলেছিলেন অগ্নি যা গ্রহণ করেন তাতে মলিনতা থাকে না, রাজার কর সেই অগ্নি । স্থমিত্রা । আমি পণ্ডিতের ব্যাখ্যা শুনতে চাই নে— বলো, এই অর্থ রাজকোষে আলে ? দেবদত্ত। নিয়মরক্ষার জন্তে কিছু অাসে বৈকি, কিন্তু অনিয়মের কবলটা তার চেয়ে অনেক বড়ো, বেশির ভাগ তলিয়ে যায় সেই গহবরে । মহারানী, অনেক পাপীর উচ্ছিষ্ট রাজকোষে জমা হয় । রত্নেশ্বর। মা, এটুকু কথা নিয়ে দুঃখ কোরো না— আমাদের অন্নসম্বল অল্প, তার কান্না কেঁদে কেঁদে আমাদের স্বর ক্লাস্ত । সেই সম্বলকে যখন কেউ স্বল্পতর করে তখন তা নিয়ে অভিযোগ করা আমরা ছেড়ে দিয়েছি । কিন্তু আমাদেরও মর্মস্থান আছে, সেখানে রাজায় প্রজার ভেদ নেই ; সেখানে যদি রাজা হাত দেন সে আমাদের সইবে না। সুমিত্রা । বলো সব কথা । ভয় কোরো না । রত্নেশ্বর। আমরা অত্যন্ত ভীরু, মহারানী, কিন্তু অত্যন্ত দুঃখে আমাদেরও ভয় ভেঙে যায়। সেইজন্তেই এমন করে চলে আসতে পেরেছি। জানি বিপদ সাংঘাতিক, কিন্তু বিপদের চেয়ে যেখানে মানি দুঃসহ সেখানে আমাদের মতো দুর্বলও বিপদকে গ্রাহ করে না। না খেয়ে মরার দুঃখ কম নয় কিন্তু এমন অবস্থা আছে যখন বেঁচে থাকার মতো দুঃখ আর নেই। স্বমিত্র। সে কথা আমিও বুঝি। যা তোমার বলবার আছে সব তুমি আমার কাছে বলো । রত্নেশ্বর। তীর্থদ্বারে কর সংগ্রহের জন্তে রাজার অনুচর নিযুক্ত, স্বন্দরী মেয়েদের বিপদ ঘটছে প্রতিদিন । স্বমিত্রা । সর্বনাশ ! সত্য বলছ ? রত্নেশ্বর। যে কথা নিয়ে মানুষ মরতে প্রস্তুত হয়, আমি সেই কথা শুধু মুখে বলতে এসেছি মহারানী, এই আমার লজ। আমার ছোটোবোন গিয়েছিল তীর্থে, হতভাগিনী আজও ফেরে নি। স্বমিত্র । এও তুমি সহ করেছ ? து. রত্নেশ্বর । সহ করব না, সেই পণ করেই বেরিয়েছি। নিজের হাতেই দণ্ড