পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গল্পগুচ্ছ శిరివి দেখিতেছি, আমি আজ বুঝিয়াছি, সম্মান জামাকে নহে, আমার স্বন্ধের বোঝাগুলাকে ।” ங் প্রমথনাথ বাড়ি আসিয়া বাড়ির ছেলেপুলে সকলকে ভাকিয়া একটা হোমাগ্নি জালাইলেন এবং বিলাতি বেশভূষাগুলো একে একে আহুতিস্বরূপ নিক্ষেপ করিতে লাগিলেন। শিখা যতই উচ্চ হইয়া উঠিল ছেলেরা ততই উচ্ছসিত আনন্দে নৃত্য করিতে লাগিল । তাহার পর হইতে প্রমথনাথ ইংরাজঘরের চায়ের চুমুক এবং রুটির টুকরা পরিত্যাগ করিয়া পুনশ্চ গৃহকোণদ্বর্গের মধ্যে দুর্গম হইয়া বলিলেন, এবং পূর্বোক্ত লাঞ্ছিত উপাধিধারীগণ পূর্ববৎ ইংরাজের দ্বারে দ্বারে উষ্ণৗষ আন্দোলিত করিয়া ফিরিতে লাগিল । দৈবদুর্যোগে দুর্ভাগ্য নবেন্দুশেখর এই পরিবারের একটি মধ্যমা ভগিনীকে বিবাহ করিয়া বসিলেন । বাড়ির মেয়েগুলি লেখাপড়াও যেমন জানে দেখিতে শুনিতেও তেমনি ; নবেন্দু ভাবিলেন, বড়ো জিতিলাম।” কিন্তু ‘আমাকে পাইয়া তোমরাও জিতিয়াছ" এ কথা প্রমাণ করিতে কালবিলম্ব করিলেন না। কোন সাহেব তাহার বাবাকে কবে কী চিঠি লিখিয়াছিল তাহা ধেন নিতান্ত ভ্রমবশত দৈবক্রমে পকেট হইতে বাহির করিয়া শুশলীদের হস্তে চালান করিয়া দিতে লাগিলেন । শুশলীদের সুন্দর স্বকোমল বিম্বেীষ্ঠের ভিতর হইতে তীক্ষু প্রখর হাসি যখন টুকটুকে মখমলের থাপের ভিতরকার ঝকঝকে ছোরার মতো দেখা দিতে লাগিল, তখন স্থানকালপাত্র সম্বন্ধে হতভাগ্যের চৈতন্য জন্মিল। বুঝিল, বড়ো ভুল করিয়াছি।” শুশলীবর্গের মধ্যে জ্যেষ্ঠা এবং রূপে গুণে শ্রেষ্ঠা লাবণ্যলেখা একদা শুভদিন দেখিয়া নবেন্দুর শয়নকক্ষের কুলুঙ্গির মধ্যে দুইজোড়া বিলাতি বুট সিন্দূরে মণ্ডিত করিয়া স্থাপন করিল , এবং তাহার সম্মুখে ফুলচন্দন ও দুই জলস্ত বাতি রাখিয়া ধূপধুনা জালাইয়া দিল। নবেন্দু ঘরে প্রবেশ করিবামাত্র দুই খালী তাহার দুই কান ধরিয়া কহিল, “তোমার ইষ্টদেবতাকে প্রণাম করো, তাহার কল্যাণে তোমার পদবৃদ্ধি হউক।” তৃতীয়া শুালী কিরণলেখা বহুদিন পরিশ্রম করিয়া একখানি চাদরে জোন্স স্মিথ ব্রাউন টম্সন প্রভৃতি একশত প্রচলিত ইংরাজি নাম লাল স্থতা দিয়া সেলাই করিয়া একদিন মহাসমারোহে নবেন্দুকে নামাবলি উপহার দিল ।