পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


\D@ o রবীন্দ্র-রচনাবলী পুণবি দহ সত্ত তহ বিরই জাঅ। এম পরি বিবিহুদল মত্ত সততাস পল এহু কহ ঝুল্পণা ণাঅরআ ॥ ভাষ্যকারের ব্যাখ্যা এই : প্রথমং দশমাত্রা দীয়স্তে । অর্থাৎ তত্র বিরতি: ক্রিয়তে । পুনরপি তথা কর্তব্য । পুনরপি সপ্তদশমাত্রাস্থ বিরতির্জাত চ । অনয়ৈব রীত্য দলদ্বয়েপি মাত্রা সপ্তত্রিংশং পতস্তি। এমনি করে দলগুলিকে মিলিয়ে যে ছন্দের সাঁইত্রিশ মাত্রা তামিমাং নাগরাজ পিঙ্গলো ঝুল্পণামিতি কথয়তি'। আমি যাকে ছন্দোবিশেষের রূপকল্প বা প্যাটর্ন বলছি কুল্পণা ছন্দে গেইটে সাইত্রিশ মাত্রায় সম্পূর্ণ; তার পরে তার অনুরূপ পুনরাবৃত্তি। অমূল্যবাবু হয়তো এর কথাগুলির প্রতি লক্ষ রেখে একে পাচ বা দশ মাত্রার ছন্দ বলবেন, কিন্তু পাচ বা দশ মাত্রায় এর পদের সম্পূর্ণত নয় । যার ভাগগুলি অসমান এমন ছন্দ দেখা যাক— কুংতঅরু ধণুদ্ধরু হঅবর গঅবরু ছক্কলু বিবি পা ইক্ক দলে । এই ছন্দ সম্বন্ধে বলা হয়েছে ‘দ্বীত্রিংশষ্মাত্রা: পাদে স্বপ্রসিদ্ধা: ৷ এই ছন্দকে বাংলায় ভাঙতে গেলে এইরকম দাড়ায় । কুঞ্জপথে জ্যোৎস্নারাতে চলিয়াছে সখীসাথে মল্লিকণকলিকণর মাল্য হাতে । চার পঙক্তিতে এই ছন্দের পূর্ণরূপ এবং সেই পূর্ণরূপের মাত্রাসংখ্যা বত্ৰিশ । ছন্দে মাত্রাগণনার এই ধারা আমি অনুসরণ করা কর্তব্য মনে করি । মনে নেই, আমার কোনো পূর্বতন প্রবন্ধে অন্ত মত প্রকাশ করেছি কি না ; যদি করে থাকি তবে ক্ষমা প্রার্থনা করি । সবশেষে পুনরায় বলি, ছন্দের স্বরূপনির্ণয় করতে হলে সমগ্রের মাত্রাসংখ্যা, তার কলাসংখ্যা ও কলাগুলির মাত্রাসংখ্যা জানা আবশ্বক। শুধু তাই নয়, যেখানে ছন্দের রূপকল্প একাধিক পদের দ্বারা সম্পূর্ণ হয় সেখানে পদসংখ্যাও বিচাৰ। যথা—