পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৬৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রন্থপরিচয় 8 Ost ওই দেখো পুকুরের ধারে ডাঙা, ওইখানে শয়তান মাছ-রাঙা— কেন মিছে হবে ওর লক্ষ্য ।” সংযোজন-অংশের কবিতাগুলি বিভিন্ন সাময়িকপত্র, কবির ‘ছন্দ’ গ্রন্থ এবং রবীন্দ্রসদনের পাণ্ডুলিপি হইতে সংকলিত হইল। ‘পাবনায় বাড়ি হবে’, ‘বালিশ নেই সে ঘুমোতে যায়’, ‘পাচদিন ভাত নেই, এই কবিতা তিনটি ‘প্ৰহাসিনী’ ( ১৩৪৫ ) গ্রন্থের “খাপছাড়া’ অংশ হইতে গ্রহণ করা হইয়াছে ; উক্ত গ্রন্থের রচনাবলী সংস্করণে ( খগু ২৩ ) কবিতা তিনটি বর্জিত হইয়াছে। এই অংশের ৪-২•-সংখ্যক কবিতা কয়টি ইতিপূর্বে কোনো গ্রন্থে প্রকাশিত হয় নাই। সংযোজনের ৭-সংখ্যক কবিতার পাণ্ডুলিপিতে-প্রাপ্ত পূর্বপাঠ এখানে মুদ্রিত হইল— ধীরু কহে শূন্তেতে মজো রে, নিরাধার সত্যেরে ভজো রে । এত বলি ঘোড়াটারে দুই পায়ে গুতো মারে, চাবুক লাগায় তারে সজোরে। যত ছোটে সারাদিন কিছুতেই ঘোড়াহীন আপনারে নাহি পড়ে নজরে ॥ ছড়ার ছবি 'ছড়ার ছবি' ১৩৪৪ সালের আশ্বিন মাসে ‘নন্দলাল বস্থ -কর্তৃক চিত্রাঙ্কিত আকারে প্রকাশিত হয় । ১৯৩৭ সালের গ্রীষ্মে ( মে-জুন মাসে ) আলমোড়া বাসকালে রবীন্দ্রনাথ বিশ্বপরিচয়’ ও এই গ্রন্থের অধিকাংশ কবিতা রচনা করেন। রবীন্দ্রসদনে-রক্ষিত পাণ্ডুলিপির সাহায্যে বর্তমান সংস্করণে কয়েকটি কবিতার রচনার তারিখ এবং স্থান -সম্বন্ধীয় নির্দেশ সংশোধিত বা সংযোজিত হইল । 'বুধু কবিতাটির শেষে সাময়িকপত্রে (সোনার কাঠি ; আশ্বিন ১৩৪৪) এবং পাণ্ডুলিপিতে নিম্নমুদ্রিত অতিরিক্ত অংশটুকু পাওয়া যায়— পাছে কোথাও হারিয়ে সে যায় দৃষ্টি দেয় বা কেহ O সর্বদা সন্দেহ ।