পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৬৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রন্থপরিচয় 8Տ)Գ কোথাও কোনো শব্দ যে নাই, তারি শব্দ বাজে বক্ষেণগুহার মাঝে । আকাশ যাহার একলা অতিথ শুষ্ক বালুর ভূপে স্তন্ধ থাকি সেই ধরণীর বৈরাগিনীর রূপে । আলমোড়া ר סlטאו • כ তপতী তপতী ১৩৩৬ সালের ভাদ্র মাসে প্রথম গ্রন্থাকারে মুদ্রিত হয়। নাটকটির রচনা-পরিচয় ভূমিকা"তে রবীন্দ্রনাথ নিজেই বিশদভাবে লিখিয়াছেন। এখানে . উল্লেখ করা যাইতে পারে যে, "রাজা ও রানী রবীন্দ্র-রচনাবলীর প্রথম খণ্ডে মুদ্রিত হইয়াছে, উক্ত নাটকের গ্রন্থপরিচয় অংশ এই প্রসঙ্গে দ্রষ্টব্য । ‘পথে ও পথের প্রান্তে” গ্রন্থের ৩৯-সংখ্যক পত্রে তপতী নাটকটি সদ্য রচিত হইবার সংবাদ আছে। পত্রটির প্রাসঙ্গিক অংশ উদদ্ভুত হইল— পুত্রসস্তান লাভ হলে সে সংবাদ খুব উৎসাহ করে প্রচার করা হয়। গতকল্য আমার লেখনী একটি সর্বাঙ্গসুন্দর নাটককে জন্ম দিয়েছে— দশমাস তার গর্ভবাস হয় নি— বোধ করি দিন-দশেকের বেশি সময় নেয় নি । ‘সর্বাঙ্গমুন্দর’ বিশেষণটা পড়ে হয়তো তোমার ওষ্ঠাধর হাস্যকুটিল হয়ে উঠবে। ওর মধ্যে একটুখানি সাইকলজির খেলা আছে। বাকাটা যখন মনের মধ্যে রচিত হয়েছিল তখন কথাটা ছিল সর্বাঙ্গসম্পূর্ণ’ কিন্তু যখন লেখা হল তখন দেখি, কথাটা বদলে গেছে । কেটে সংশোধন করা অসম্ভব ছিল না কিন্তু ভেবে দেখলুম, যেটাকে সত্য বলে বিশ্বাস করি সেইটেই লেখা হয়ে গেছে। বিনয়টাকে তখনই সদগুণ বলতে রাজি আছি যখন সেটা অসত্য নয় ।... নিজের লেখা খারাপ লাগতে যার বাধে না, এবং সেটাকে অকুষ্ঠিত ভাষায় স্বীকার করতে যার বেদন নেই, নিজের লেখার প্রশংসা করা তার পক্ষে অহংকার নয়। অতএব খুব জোরের সঙ্গেই বলব, নাটকটা সর্বাঙ্গস্বন্দর হয়েছে।... যাক গে। বিষয়টা ছিল, আমার নতুন নাটক রচনা। রাজা ও রানীর রূপান্তরীকরণ। সেই নাম রইল ; সেই রূপ রইল না । বিশ্বভারতীর কর্মসচিবকে খাজনা দিতে হবে না। যদি সাবেক নামটার জন্তে ভাড়ার দাবি করেন সেটাকে বদলাতে কতক্ষণ । ‘স্বমিত্রা’ নামই