পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৯০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


W28 রবীন্দ্র-রচনাবলী বোইমি সে হুহ বাজাবে মন্দিরী, সকালবেলার কাজ আছে তার নাম শুনিয়ে ফিরা । হেলেঙ্কুলে পোষা হীলের দল যেতে যেতে জলের পথে করবে কোলাহল । আমারও পথ হাসের ষে-পথ, জলের পথে যাত্রী, ভাসতে যাব ঘাটে ঘাটে ফুরোবে যেই রাত্রি । সাতার কাটৰ জোয়ার-জলে পৌছে উজিরপুরে, শুকিয়ে নেব ভিজে ধুতি বালিতে রোদছরে । • গিয়ে ভজনঘাট কিনব বেগুন পটোল মুলো, কিনব সজনেভাট । পৌছব আটবাকে, স্বর্য উঠবে মাঝগগনে, মহিষ নামবে পাকে । কোকিল-ভাক বকুল-তলায় রাধব আপন হাতে, কলার পাতায় মেখে নেব গাওয়া ঘি আর ভীতে । মাখনাগীয়ে পাল নামাবে, বাতাস যাবে থেমে ; বনঝাউ-ঝোপ রঙিয়ে দিয়ে স্বৰ্ষ পড়বে নেমে । বাকীদিঘির ঘাটে যাব যখন সন্ধে হবে গোষ্ঠে-ফেরা ধেন্থর হাম্বারবে । ভেঙে-পড়া ডিঙির মতো ছেলে-পড়া দিন তারা-ভাগা আঁধার-তলায় কোথায় হবে লীন । 88 م د ؤerTج ভজহরি ংকঙেতে সারাবছর আপিস করেন মামা, সেখান থেকে এলেছিলেন চীনের দেশের শুণমা, দিয়েছিলেন মাকে, ঢাকণর নীচে যখল-তখল শিস দিয়ে সে ভীকে ।