পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


༦༠༤ ༠ রবীন্দ্র-রচনাবলী . উপাধ্যায়। সে আমি অহমানেই বুঝেছি, নইলে এতবড়ো আয়ুক্ষয়কর অনিয়মটা ঘটবে কেন। শুনেছি, তুমি নাকি সকলের সাহস বাড়িয়ে দেবার জন্ত পটুবর্মকে ডেকে তোমার গায়ের উপর একশো বার হাই তুলতে বলেছিলে ? পঞ্চক। আপনি ভুল শুনেছেন । উপাধ্যায়। ভুল শুনেছি ? * , পঞ্চক। একলা পটুবর্মকে নয়, সেখানে যত ছেলে ছিল প্রত্যেককেই আমার গায়ের উপর অন্তত দশটা করে হাই তুলে যাবার জন্যে ডেকেছিলুম— পক্ষপাত করি নি । উপাধ্যায়। প্রত্যেককেই ডেকেছিলে ? পঞ্চক। প্রত্যেককেই। আপনি বরঞ্চ জিজ্ঞাসা করে জানবেন। কেউ সাহস করে এগোল না। তারা হিসেব করে দেখলে, পনেরো জন ছেলেতে মিলে দড়শো হাই তুললে তাতে আমার সমস্ত আয়ু ক্ষয় হয়ে গিয়েও আরো অনেকটা বাকি থাকে, সেই উদ্ভূত্তটাকে নিয়ে যে কী হবে তাই স্থির করতে না পেরে তারা মহাপঞ্চকদাদাকে প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করতে গেল, তাতেই তো অামি ধরা পড়ে গেছি। উপাধ্যায়। দেখো, তুমি মহাপঞ্চকের ভাই বলে এতদিন অনেক সহ করেছি, কিন্তু আর চলবে না। আমাদের গুরু আসছেন শুনেছ ? পঞ্চক। গুরু আসছেন ? নিশ্চয় সংবাদ পেয়েছেন ? উপাধ্যায় । ই । কিন্তু এতে তোমার উৎসাহের তো কোনো কারণ নেই। পঞ্চক। আমারই তো গুরুর দরকার বেশি, আমার যে কিছুই শেখা হয় নি। সুভদ্রের প্রবেশ সুভদ্র । উপাধ্যায়মশায় । পঞ্চক। আরে, পালা পালা। উপাধ্যায়মশায়ের কাছ থেকে একটু পরমার্থতত্ব শুনছি, এখন বিরক্ত করিস নে, একেবারে দৌড়ে পালা । উপাধ্যায়। কী সুভদ্ৰ, তোমার বক্তব্য কী শীঘ্র বলে যাও। স্বভদ্র । আমি ভয়ানক পাপ করেছি। পঞ্চক । ভারি পণ্ডিত কিনা ! পাপ করেছি ! পালা বলছি। উপাধ্যায়। ( উৎসাহিত হইয়া) ওকে তাড়া দিচ্ছ কেন । সুভদ্র, শুনে যাও। পঞ্চক। আর রক্ষা নেই, পাপের একটুকু গন্ধ পেলে একেবারে মাছির মে ছোটে । - *