পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুরৰী নিবিড় নীরব অন্ধকারে রাতের বেলায় অনেক দিনের দূরের ডাকা পূর্ণ করো কাছের খেলায় । তোমায় আমায় নতুন পালা হ’ক না এবার হাতে হাতে দেবার নেবার । আগুেস জাহাজ ২৮ অক্টোবর, ১৯২৪ অবসান পারের ঘাট পাঠাল তরী ছায়ার পাল তুলে, আজি আমার প্রাণের উপকূলে । মনের মাঝে কে কয় ফিরে ফিরে— বঁশির স্বরে ভরিয়া দাও গোধূলি-আলোটিরে । সাঝের হাওয়া করুণ হ’ক দিনের অবসানে পাড়ি দেবার গানে । সময় যদি এসেছে তবে সময় যেন পাই, নিভৃত খনে আপন মনে গাই । আভাস যত বেড়ায় ঘুরে মনে— অশ্ৰুঘন কুহেলিকায় লুকায় কোণে কোণে,— সন্ধ্যা মম, কোন কথাটি প্রাণের কথা তব, আমার গানে, বলে, কী আমি কব । দিনের শেষে যে-ফুল পড়ে ধরে তাহারি শেষ নিঃশ্বাসে কি বাশিটি নেব ভরে ? অথবা ব’সে বাধিব স্থর ষে-তারা ওঠে রাতে তাহারি মহিমাতে । bro