পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


eళి ब्रदौटान्ब्रछनांवलौ তেমনি তারার মতো মুখে মোর চাহিলে, কল্যাণী, । কহিলে তেমনি স্বরে, “তোমারে যে জানি আমি জানি জানি না তো ভাষা তব, হে নারী, শুনেছি তব গীতি, “প্রেমের অতিথি কবি, চিরদিন আমারি অতিথি ।” বুয়েনোস এয়ারিস ১৫ নভেম্বর, ১৯২৪ অন্তৰ্হিত প্রদীপ যখন নিবেছিল, আঁধার যখন রাতি, দুয়ার যখন বন্ধ ছিল, ছিল না কেউ সাথি । মনে হল অন্ধকারে কে এসেছে বাহির-দ্বারে, মনে হল শুনি যেন পায়ের ধ্বনি কার, রাতের হাওয়ায় বাজল বুঝি কঙ্কণ-ঝংকার । বারেক শুধু মনে হল খুলি, দুয়ার খুলি । ক্ষণেক পরে ঘুমের ঘোরে কখন গেছ জুলি । “কোন অতিথি দ্বারের কাছে একলা রাতে বসে আছে ?” ক্ষণে ক্ষণে তজা ভেঙে মন শুধাল ঘৰে, বলেছিলেম, আর কিছু নয়, স্বপ্ন আমার হবে।