পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুরী 为参拿 কেহ যারে নাহি শোনে, সবাই যাহারে বলে, “জানি”, আমি সেই পুরাতন বাণী । বণিকের পণ্যষান, হে তুমি রাজার জয়রথ, আমি চলিবার পথ, সেই অামি ভুলিবার পথ, তীব্ৰ-দুঃখ মহা-দম্ভ, চিহ্ন মুছে গিয়েছে সবাই 龜 কিছু নাই, নাই । , কতু স্বখে, কতু দুঃখে নিয়ে চলি ; স্বদিন দুদিন নাহি বুঝি অামি উদাসীন । বারবার কচি ঘাস কোথা হতে আসে মোর কোলে, চলে যায়,—সে-ও বায় যে ষায় তাহারে দ’লে দ’লে, বিচিত্রের প্রয়োজনে অবিচিত্র আমি শূন্তময়, কিছু নাহি ৱয় । বসিতে না চাহে কেহ, কাহারো কিছু না সহে দেরি, কারো নই, তাই সকলেরি। বামে মোর শস্তক্ষেত্র দক্ষিণে অামার লোকালয়, প্রাণ সেথা দুই হস্তে বর্তমান অঁাকড়িয়া রয় । আমি সর্ববন্ধহীন নিত্য চলি তারি মধ্যখানে, ভবিস্থ্যের পানে । তাই আমি চির-রিক্ত কিছু নাহি থাকে মোর পুজি, কিছু নাহি পাই, নাহি খুজি । আমারে ভুলিবে ব’লে যাত্রীদল গান গণহে স্বরে, পারি নে রাখিতে তাহ, সে-গান চলিয়া যায় দূরে । বসন্ত আমার বুকে আসে যবে ধুলায় আকুল, নাছি দেয় ফুল । পৌছিয়া ক্ষতির প্রাস্তে বিত্তহীন একদিন শেষে শষ্য পাতে মোর পাশে এসে ।