পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


33వ 弥 ब्रवैौञ्ज-ब्रक्रमांवलौ তব দীপ্ত অগ্নি শত শতন্ত্রী বিল্পবিজয় পন্থ । "A তব লৌহগৱান শৈলদলন * J. অচল-চলন মন্ত্ৰ | কতু कार्छरजाड़ेझेंटेक्नृल्ल ঘনপিনদ্ধ কায়া, কতু ভূতল-জল-অন্তরীক্ষলঙ্ঘন লঘুমায়া, उद খনি-খনিত্র-নখ-বিদীর্ণ ক্ষিতি বিকীর্ণ-অন্ত্র, তব পঞ্চভূত-বন্ধনকর ইন্দ্রজাল তন্ত্র । [ বিভূতিকে লইয়া সকলে প্রস্থান করিল উত্তরকুটের রাজা রণজিৎ ও র্তাহার মন্ত্রী শিবিরের দিক হইতে আসিয়া প্রবেশ করিলেন রণজিৎ । শিবতরাইয়ের প্রজাদের কিছুতেই তো বাধ্য করতে পারলে না। এতদিন পরে মুক্তধারার জলকে আয়ত্ত করে বিভূতি ওদের বশ মানাবার উপায় করে দিলে। কিন্তু মন্ত্রী তোমার তো তেমন উৎসাহ দেখছি নে। ঈর্ষা ? মন্ত্রী । ক্ষমা করবেন, মহারাজ। খন্তা-কোদাল হাতে মাটি-পাথরের সঙ্গে পালোয়ানি আমাদের কাজ নয়। রাষ্ট্রনীতি আমাদের অস্ত্র, মানুষের মন নিয়ে আমাদের কারবার। যুবরাজকে শিবতরাইয়ের শাসনভার দেবার মন্ত্রণা আমিই দিয়েছিলুম, তাতে যে বাধ বাধা হতে পারত সে কম নয় । রণজিৎ । তাতে ফল হল কী ? দুবছর খাজনা বাকি । , এমনতরো দুর্ভিক্ষ তো সেখানে বারে বারেই ঘটে, তাই বলে রাজার প্রাপ্য তো বন্ধ হয় না। মন্ত্রী। খাজনার চেয়ে দুমূল্য জিনিস আদায় হচ্ছিল, এমন সময় তাকে ফিরে আসতে আদেশ করলেন । রাজকার্ধে ছোটোদের অবজ্ঞা করতে নেই। মনে রাখবেন, যখন অসহ হয় তখন দুঃখের জোরে ছোটোরা বড়োদের ছাড়িয়ে বড়ো হয়ে ওঠে। রণজিৎ । তোমার মন্ত্রণার স্বর ক্ষণে ক্ষণে বদলায়। কতবার বলেছ উপরে চড়ে বসে নিচে চাপ দেওয়া সহজ, আর বিদেশী প্রজাদের সেই চাপে রাখাই রাজনীতি – এ-কথা বল নি ?