পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


સ્વ છે જ’ ब्रदौट्ज-ब्रछनांबली গান ভুলে যাই থেকে থেকে তোমার আসন পরে বসাতে চাও নাম আমাদের হেঁকে হেঁকে । সত্যি কথা বলব, বাবা ? যতক্ষণ র্তারই আসন বলে না চিনবি ততক্ষণ সিংহাসনে দাবি খাটবে না, রাজারও নয়, প্রজারও না। ও তো বুক-ফুলিয়ে বলবার জায়গা নয়, হাত জোড় করে বসা চাই । দ্বারী মোদের চেনে না যে, বাধা দেয় পথের মাঝে, বাহিরে দাড়িয়ে আছি, লও ভিতরে ডেকে ডেকে । দ্বারা কি সাধে চেনে না ? ধুলোয় ধুলোয় কপালের রাজটিক যে মিলিয়ে এসেছে। ভিতরে বশ মানল না, বাইরে রাজত্ব করতে ছুটবি ? রাজা হলেই রাজাসনে বসে ; রাজাসনে বসলেই রাজা হয় না। মোদের প্রাণ দিয়েছ আপন হাতে মান দিয়েছ তারি সাথে । থেকেও সে মান থাকে না ষে লোভে আর ভয়ে লাজে, স্নান হয় দিনে দিনে, যায় ধুলোতে ঢেকে ঢেকে । ১ । যাই বল, রাজদুয়োরে কেন যে চলেছ বুঝতে পারলুম না। ধনঞ্জয় । কেন, বলব ? মনে বড়ো ধোক লেগেছে । ১ । সে কী কথা ? ধনঞ্জয়। তোরা আমাকে যত জড়িয়ে ধরছিস তোদের সাতার শেখ। ততই পিছিয়ে যাচ্ছে। আমারও পার হওয়া দায় হল । তাই ছুটি নেবার জন্তে চলেছি সেইখানে, যেখানে আমাকে কেউ মানে না । ১ । কিন্তু রাজ তোমাকে তে সহজে ছাড়বে না। ধনঞ্জয় । ছাড়বে কেন রে। যদি আমাকে বাধতে পারে তাহলে আর ভাবনা রইল কী ?