পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৪৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


င္ဆိုႏိုင္ရန္က် ब्रबौटछ-ब्रछनांबलौ وفه দেখে তাহলেই হৰ্ষশোকের সমস্ত জোর চলে যাবে। তাহলে ক্ষতিতে, নিন্দতে, পীড়াতে, মৃত্যুতে কিলেই বা ভয় ? জয়ী, আত্মা জয়ী। আত্মা ক্ষণিক সংসারের S BBBBB BDSBB BBDD DDDBB BBB S BBB BBB BDD BBBBS সেইজন্ত আত্মাকে ধারা সত্যরূপে জানেন র্তারা ব্রন্ধের আনন্দকে জানেন এবং ব্রহ্মের আনন্দকে ধারা জানেন র্তারা—ন বিভেতি কদাচন। পরমে ব্রহ্মণি যোজিতচিত্ত: बनाठि नमडि बब्यcडर ! পরমব্রহ্মের মধ্যে ধারা আপনাকে মুক্ত করে দেখেছেন তার ললিত হন, নন্দিত হন, নন্দিতই হন । আর সংসারে যারা নিজেকে যুক্ত করে জানেন র্তারা শোচতি শোচতি শোচত্যেব। १ फॉसुन ७७sé চারিদিকে সংসারে আমরা দেখছি—স্বষ্টিব্যাপার চলছেই । যা ব্যাপ্ত তা সংহত হচ্ছে, যা সংহত তা ব্যাপ্ত হচ্ছে। আঘাত হতে প্রতিঘাত, রূপ হতে রূপান্তর চলেইছে, —এক মুহূর্ত তার কোথাও বিরাম নেই। সকল জিনিসই পরিণতির পথে চলেছে কিন্তু কোনো জিনিসেরই পরিসমাপ্তি নেই। আমাদের শরীর-বুদ্ধি-মনও প্রকৃতির এই চক্রে ঘুরছে, ক্রমাগতই তার সংযোগ বিয়োগ হ্রাসবৃদ্ধি তার অবস্থান্তর চলেছে। প্রকৃতির এই স্বৰ্ষতারাময় লক্ষকোটি চাকার স্বথ ধাবিত হচ্ছে—কোথাও এর শেষ গম্যস্থান দেখি নে, কোথাও এর স্থির হবার নেই। আমরাও কি এই রখে চড়েই এই লক্ষ্যহীন অনস্তপথেই চলেছি, যেন এক জায়গায় যাবার আছে এইরকম মনে হচ্ছে অথচ কোনোকালে কোথাও পৌছোতে পারছি নে ? আমাদের অস্তিত্বই কি এই রকম অবিশ্রাম চলা, এই রকম অনন্ত সন্ধান ? এর মধ্যে কোথাও কোনোরকম প্রাপ্তির, কোনোরকম স্থিতির তত্ত্ব নেই ? এই যদি সত্য হয়, দেশকালের বাইরে আমাদের যদি কোনো গতিই না থাকে তাহলে যিনি দেশকালের অতীত, যিনি অভিব্যঞ্জমান নন, যিনি আপনাতে পরিসমাপ্ত, তিনি আমাদের পক্ষে একেবারেই নেই। সেই পূর্ণতার স্থিতিধর্ম যদি আমাদের মধ্যে একান্তই না থাকে তবে অনস্তস্বরূপ পরব্রহ্মের প্রতি আমরা বা-কিছু বিশেষণ প্রয়োগ করি সে কেবল কতকগুলি কথা মাত্র, আমাদের কাছে তার কোনো