পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শান্তিনিকেতন । . శ్రీt3) ৰে-জিনিসটা এমন করে ফেলাছড়া করছ এটার ৰে খুৰ প্রয়োজন আছে। একটু চুপ করে, একটু স্থির হও, অত বাড়িয়ে ব’লো না, অমন মাত্রা ছাড়িয়ে চলে না, যে জল পান করবার জন্তে ঘত্বে সঞ্চিত করা দরকার সে জলে থামক পা ডুবিয়ে বসো না । च्षायब्रा वर्षन भूव चांचाविन्द्रल श्रब्र 4कल्लेो छूलहठाद्ध छिडरब्र ७८कदाप्इ अंला *ाईख নেবে গিয়েছি তখনও সে আমাদের ভোলে না—বলে, ছি, এ কী কাও ! বুকের কাছেই সে বসে আছে, কিছুই তার দৃষ্টি এড়াতে চায় না। সিদ্ধিলাভের কাছাকাছি গেলে প্রেমের সহজ প্রাজ্ঞতা লাভ হয়, তখন মাত্রাবোধ আপনি ঘটে । সহজ কবি যেমন সহজেই ছন্দোৱক্ষা করে চলে আমরা তেমনি সহজেই জীবনকে আগাগোড়া সৌন্দর্যের মধ্যে বিশুদ্ধরূপে নিয়মিত করতে পারি। তখন খলন হওয়াই শক্ত হয়। কিন্তু রিক্ততার দিনে সেই আনন্দের সহজ শক্তি যখন থাকে না, তখন পদে পদে ধতিপতন হয় ; যেখানে থামবার নয় সেখানে আলস্ত করি, যেখানে থামবার সেখানে বেগ সামলাতে পারি নে। তখন এই কঠোর নিষ্ঠাই আমাদের একমাত্র সহায় । তার ঘুম নেই সে জেগেই আছে। সে বলে ও কী ! ওই যে একটা রাগের রক্ত আভা দেখা দিল । ওই যে নিজেকে একটু বেশি করে বাড়িয়ে দেখবার জন্তে তোমার চেষ্টা আছে । ওই যে শক্রতার কাটা তোমার স্মৃতিতে বিধেই রইল । কেন, হঠাৎ গোপনে তোমার এত ক্ষোভ দেখি কেন ! এই যে রাত্রে শুতে যাচ্ছ এই পবিত্র নির্মল নিদ্রার কক্ষে প্রবেশ করতে যাবার মতো শান্তি তোমার অন্তরে কোথায় ! সাধনার দিনে নিষ্ঠার এই নিত্য সতর্কতার স্পৰ্শই আমাদের সকলের চেয়ে প্রধান আনন্দ । এই নিষ্ঠা যে জেগে আছেন এইটে যতই জানতে পাই ততই বক্ষের মধ্যে নির্ভর অমুভব করি। যদি কোনোদিন কোনো আত্মবিস্মৃতির দুর্বোগে এর দেখা না পাই তবেই বিপদ গনি । যখন চরম স্বহৃদকে না পাই তখন এই নিষ্ঠাই আমাদের পরম স্থহদরূপে থাকেন। তার কঠোর মূর্তি প্রতিদিন আমাদের কাছে শুভ্র সৌন্দর্ষে মণ্ডিত হয়ে ওঠে। এই চাঞ্চল্যবজিত ভোগবিরত পুণ্যত্র তাপসিনী আমাদের রিক্ততার মধ্যে শক্তি শাস্তি এবং জ্যোতি ধিকীর্ণ করে দারিদ্র্যকে রমণীয় করে তোলেন। গম্যস্থানের প্রতি কলম্বসের বিশ্বাস যখন স্থাঢ় হল তখন নিষ্ঠাই তাকে পথচিহ্নহীন অপরিচিত সমুজের পথে প্রত্যহ ভরসা দিয়েছিল। তার নাবিকদের মনে লে বিশ্বাস দৃঢ় ছিল না, তাদের সমূহৰাত্রায় নিষ্ঠাও ছিল না। তার প্রতিদিনই বাইরে থেকে একটা কিছু সফলতার মূর্তি দেখবার জন্তে ব্যস্ত ছিল ; কিছু একটা মা পেলে তাদের শক্তি অবসর হয়ে পড়ে, এই জন্তে দিন তই মেতে; লাগল সমূদ্র যতই শেষ হয় না, তাদের অধৈৰ্ব ততই বেড়ে উঠতে থাকে। তারা বিদ্রোহ করবার উপক্রম করে, তার 8 &