পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৬৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী বহুক্ষণ চলে গেছে অরণ্যের পল্লব মর্মরি’ ; নিকুঞ্জভবন গন্ধের ইঙ্গিত দিয়ে বসন্তের উৎসবের পথ করে না প্রচার । কাহারে ডাকিস তুই, গেছে চলে তার স্বর্ণরথ কোন সিন্ধুপার । জানি জানি আপনার অস্তরের গহনবাসীরে আজিও না চিনি । সন্ধ্যারতিলগ্নে কেন আসিলে না নিভৃত মন্দিরে শেষ পূজারিনী ? কেন সাজালে না দীপ, তোমার পূজার মন্ত্ৰ-গানে জাগায়ে দিলে না তিমির রাত্রির বাণী, গোপনে যা লীন আছে প্রাণে দিনের অচেনা ৷ অসমাপ্ত পরিচয়, অসম্পূর্ণ নৈবেষ্ঠের থালি নিতে হল তুলে । রচিয়া রাখে নি মোর প্রেয়সী কি বরণের ডালি মরণের কুলে ? সেখানে কি পুষ্পবনে গীতহীন রজনীর তারা নব জন্ম লভি এই নীরবের বক্ষে নব ছন্দে ছুটাবে ফোয়ারা প্রভাতী ভৈরবী ॥ হারুন-মারু জাহাজ, ১ অক্টোবর, ১৯২৪