পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পূৱৰী তোমার পথের ধারে ধারে তাই এবারের মতো রেখে গেলাম গান গাখিলাম যত । মনের মাঝে বাজল যেদিন দূর চরণের ধ্বনি সেদিন আমি গেয়েছিলাম তোমার আগমনী ; দখিন বাতাস ফেলেছে শ্বাস রাতের আকাশ ঘেরি সেদিন আমি গেয়েছি গান তোমার বিরহেরি ; ভোরের বেলায় অশ্র ভর অধীর অভিমান ভৈরবীতে জাগিয়েছিল গান ॥ এ গানগুলি তোমার বলে চিনবে কখনো কি ? ক্ষতি কি তায়, নাই চিনিলে, সখী । তবু তোমায় গাইতে হবে, নাই তাহে সংশয়, তোমার কণ্ঠে বাজবে তখন আমার পরিচয় ; যারে তুমি বাসবে ভালো, আমার গানের স্বরে বরণ করে নিতে হবে সেই তব বন্ধুরে । রোদন খুজে ফিরবে তোমার প্রাণের বেদনখানি, আমার গানে মিলবে তাহার বাণী ॥ তোমার ফাগুন উঠবে জেগে, ভরবে আমের বোলে, তখন আমি কোথায় যাব চলে । পূর্ণ চাদের আসবে আসর, মুগ্ধ বস্থদ্ধরা, বকুলবীথির ছায়াখানি মধুর মূছৰ্পভরা ; হয়তো সেদিন বক্ষে তোমার মিলন-মালা গাথা ; হয়তো সেদিন ব্যর্থ আশায় সিক্ত চোখের পাতা ; সেদিন আমি আসব না তো নিয়ে আমার দান ; তোমার লাগি রেখে গেলেম গান ৷ व्षtic ॐम खांशखि ১৮ অক্টোবর, ১৯২৪