পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী لہ لے لے কেন মনে হয়— 발 তোমার এ গানখানি এখনি যে শোনালে তা নয়। বিশেষ লখের কোনো চিহ্ন পড়ে নাই এর স্বরে ; শুধু এই মনে পড়ে, এই গানে দিগন্তের দূরে আলোর র্কাপনখানি লেগেছিল সন্ধ্যাতারকার সুগভীর স্তব্ধতায়, সে-স্পন্দন শিরায় আমার রাগিণীর চমকেতে রহি রহি বিচ্ছুরিছে আলো আজি দেয়ালির দিনে । আজো এই অন্ধকারে জালো সেই সায়াহের স্মৃতি, যে নিভৃতে নক্ষত্রসভায় নীহারিকা ভাষা তার প্রসারিল নিঃশব্দ প্রভায়— ষে ক্ষণে তোমার স্বর জ্যোতিলোকে দিতেছিল আনি অনন্তের-পথ-চাওয়া ধরিত্রীর সকরুণ বাণী । সেই স্মৃতি পার হয়ে মনে মোর এই প্রশ্ন লাগে, কালের-অতীত প্রান্তে তোমারে কি চিনিতাম আগে । দেখা হয়েছিল না কি কোনে-এক সংগীতের পথে অরূপের মন্দিরেতে অপরূপ ছন্দের জগতে । শান্তিনিকেতন দেয়ালি [ & কাতিক ] ১৩৪৫ অবশেষে যৌবনের অনাস্থত রবাহুত ভিড়-করা ভোজে কে ছিল কাহার খোজে, ভালো করে মনে ছিল না তা ক্ষণে ক্ষণে হয়েছে আসন পাতা, ক্ষণে ক্ষণে নিয়েছে সরায়ে । মালা কেহ গিয়েছে পরায়ে জেনেছিন্থ, তবু কে যে জানি নাই তারে ।