পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কুকুরটা, সর্ব অঙ্গে ক্ষত, বিছানায় শোয় এসে, আমি নিজাগত । নিজেরে জানান দেয় তীব্ৰকণ্ঠে আত্মগান্ধী সতী শাড়ি লাল-পেড়ে, খাটাে খোপ-পিওটুকু ছেড়ে । ঘোমটার প্রান্ত ওঠে টাকের সীমায়— অস্থির সমস্ত পাড়া এ মেয়ের সতী-মহিমায় । এ গলিতে বাস মোর, তবু আমি জন্ম-রোমাটিক— অামি সেই পথের পথিক যে-পথ দেখায়ে চলে দক্ষিণে বাতাসে, পাখির ইশারা যায় যে-পথের অলক্ষ্য আকাশে । মৌমাছি ষে-পথ জানে মাধবীর অদৃশু আহানে। এটা সত্য কিংবা সত্য ওটা মোর কাছে মিথ্যা সে তর্কট । আকাশকুসুম-কুঞ্জবনে, দিগঙ্গনে ভিত্তিহীন যে-বাসা আমার সেখানেই পলাতক আসা-যাওয়া করে বার-বার আজি এই চৈত্রের খেয়ালে মনেরে জড়ালো ইন্দ্রজালে । দেশকাল । ভুলে গেল তার বাধা তাল । নায়িকা আসিল নেমে আকাশপ্রদীপে আলো পেয়ে । '9