পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৮৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ა 4 ჯ) রবীন্দ্র-রচনাবলী rn | ফালে বইকি, ওঁর লেখা পড়লেই টের পাওয়া যায় । তুমি এর কাছে একটু বোসো, আমি ওঁর জন্ত খাবার পাঠিয়ে দিইগে। ক্ষিতীশ । দরকার নেই, কাজ আছে, দেরি করতে পারব না । [ প্রস্থান বঁাশরি। মনে থাকে যেন আজ বিকেলে সিনেমা— তোমারই ‘পদ্মাবতী । ক্ষিতীশ । ( নেপথ্য হতে ) সময় হবে না। বঁাশরি। হবেই সময়, অন্ত দিনের চেয়ে দু-ঘণ্টা আগে । সতীশ । আচ্ছা বাশি, ঐ ক্ষিতীশের মধ্যে কি দেখতে পাও বলো তো । বাশরি। বিধাতা ওকে যে পরীক্ষার কাগজটা দিয়েছিলেন, দেখতে পাই তার উত্তরটা। আর দেখি তারই মাঝখানে পরীক্ষকের একটা মস্ত কাটা দাগ । । সতীশ । এমন ফেল-করা জিনিস নিয়ে করবে কি । বঁাশরি। ডান হাত ধরে ওকে প্রথম শ্রেণীতে উত্তীর্ণ করে দেব । সতীশ । তার পরে বা হাত দিয়ে প্রাইজ দেবার প্ল্যান আছে নাকি । বঁাশরি। দিলে পরের ছেলের প্রতি নিষ্ঠুরতা করা হবে। " সতীশ । ঘরের ছেলের প্রতিও। এ দিকে ও মহলের হাল খবরটা শুনেছ ? বঁাশরি। ও মহলের খবর এ মহলে এসে পৌছয় না। হাওয়া বইছে উলটো দিকে । সতীশ । কথা ছিল স্বৰ্ষমার বিয়ে হবে মাস খানেক বাদে, সম্প্রতি স্থির হয়েছে আসছে হপ্তায় । বঁাশরি। হঠাৎ দম এত দ্রুতবেগে চড়িয়ে দিলে যে ? সতীশ । ওদের হৃৎপিণ্ড কেঁপে উঠেছে দ্রুতবেগে, হঠাৎ দেখেছে তোমাকে রণরঙ্গিনী বেশে । তোমার তীর ছোটার আগেই ছুটে বেরিয়ে পড়তে চায়— এইরকম আন্দাজ । বঁাশরি। আমার তীর । আধমরা প্রাণীকে আমি ছুই নে। বনমালী, মোটর ডাকো । [ বঁাশরির প্রস্থান শৈলর প্রবেশ বয়স বাইশ কিন্তু দেখে মনে হয়, ষোল থেকে আঠারোর মধ্যে । ততু দেহ শ্যামবর্ণ, চোখের ভাব স্নিগ্ধ, মুখের ভাব মমতায় ভরা। সতীশ। কী আশ্চর্ষ। ভোরের স্বপ্নে আজ তোমাকেই দেখেছি, শৈল । তুমিও আমাকে দেখেছ নিশ্চয় । "ቱ 제 פף 齒