পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


बैंखिंज्ञि >叙位 পরিয়ে দিলে ) শক্ত আমার প্রাণ। তোমার কাছেও কোনোদিন কেঁদেছি বলে মনে পড়ে না, আজ যদি কাদি কিছু মনে কোরো না । (হাতে মাথা রেখে কাল্প) ভূত্যের প্রবেশ ভৃত্য। রাজাবাহাদুরের চিঠি । বঁাশরি । ( দাড়িয়ে উঠে ) শংকর, ও চিঠি আমাকে দাও । সোমশংকর । না পড়েই ? বাশরি । হা, না পড়েই । সোমশংকর। তবে নাও । ( বঁাশরি চিঠিটা ছিড়ে ফেলল ) এখনো একটা কাজ বাকি আছে। এই সিগারেট-কেস চেয়ে পাঠিয়েছিলে। কেন, বুঝতে পারি নি। বঁাশরি। আর-একবার তোমার ঐ পকেটে রাখব বলে, এ আমার দ্বিতীয়বারকার দান । সোমশংকর। সন্ন্যাসীবাবা আমাদের বাড়িতে আসবেন এখনই– বিদায় দাও, যাই তার কাছে । বঁাশরি। যাও, জয় হোক সন্ন্যাসীর । [ সোমশংকরের প্রস্থান লীলার প্রবেশ লীলা। কী ভাই— বঁাশরি। একটু বোসে । আর-একখানা চিঠি লেখা বাকি আছে, সেটা তাকে দিতে হবে তোরই হাত দিয়ে। (চিঠি লিখে লীলাকে দিলে ) পড়ে দেখ । 命念 শ্ৰীমান ক্ষিতীশচন্দ্র ভৌমিক কল্যাণবরেষু— তোমার ভাগ্য ভালো, ফঁাড়া কেটে গেল, আমারও বিবাহের আসন্ন আশঙ্কাট সম্পূর্ণ লোপ করে দিলুম। ‘ভালোবাসার নিলামে সর্বোচ্চ দরই পেয়েছি, তোমার ডাক সে-পর্যন্ত পৌছত না। অন্যত্র অন্ত-কোনো সাম্বনার স্বযোগ উপস্থিতমত যদি না জোটে তবে বই লেখো। আশা করি এবার সত্যের সঙ্গে তোমার পরিচয় হয়েছে। তোমার এই লেখায় বঁাশরির প্রতি দয়া করবার দরকার হবে না। আত্মহত্যায় এক পৈঠে পা বাড়িয়েই সে ফিরে এসেছে।