পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


$8 রবীন্দ্র-রচনাবলী নিত্য নিত্য এমনি কি অফুরান আত্মহত্যা মানবহক্টর নিরস্তর প্রলয়বৃষ্টির I অশ্রাঙ্ক প্লাবনে । নিরর্থক হরণে ভরণে মাজুষের চিত্ত নিয়ে সারাবেল মহাকাল করিতেছে দৃতিখেলা বঁ হাতে দক্ষিণ হাতে যেন— কিন্তু, কেন । প্রথম বয়সে কবে ভাবনার কী আঘাত লেগে এ প্রশ্নই মনে উঠেছিল জেগে— শুধায়েছি, এ বিশ্বের কোন কেন্দ্রস্থলে মিলিতেছে প্রতি দণ্ডে পলে অরণ্যের পর্বতের সমুদ্রের উল্লোল গর্জন, ঝটিকার মন্দ্রস্বন, si দিবসনিশার বেদনাৰীণার তারে চেতনার মিশ্রিত ঝংকার, পূর্ণ করি ঋতুর উৎসব জীবনের মরণের নিত্যকলরব, আলোকের নিঃশব্দ চরণপাত নিয়ত স্পন্দিত করি দু্যলোকের অন্তহীন রাত । কল্পনায় দেখেছিঃ, প্রতিধ্বনিমণ্ডল বিরাজে ব্ৰহ্মাণ্ডের অন্তরকলার-মাঝে । সেখী বঁধে বাসা "চতুর্দিক হতে আসি জগতের পাখা-মেলা ভাষা। সেথা হতে পুরানো স্থতিরে দীর্ণ করি মৃষ্টির আরম্ভবীজ লয় ভরি ভরি . . আপনার পক্ষপুটে ফিরে-চলা যত প্রতিধ্বনি । অতুভব করেছি তখনি,