পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৫ ফাঙ্কন, ১৩৩৮ তাহারে স্বপন করে নি তপন, মানে নি তাহারে চাদ । আকাশের সাথে অমিল প্রচার করি কর্কশস্বরে গর্জন করে বাতাসেরে জর্জরি । আজি মানুষের কলুষিত ইতিহাসে উঠি মেঘলোকে স্বৰ্গ-আলোকে হানিছে অট্টহাসে । যুগান্ত এল বুঝিলাম অনুমানে— অশাস্তি আজ উদ্যত বাজ কোথাও না বাধা মানে ; ঈর্ষা হিংসা জালি মৃত্যুর শিখা আকাশে আকাশে বিরাট বিনাশে জাগাইল বিভীষিকা । দেবত যেথায় পাতিবে আসনখানি যদি তার ঠাই কোনোখানে নাই তবে, হে বজ্রপাণি, এ ইতিহাসের শেষ অধ্যায়তলে রুদ্রের বাণী দিক দাড়ি টানি প্রলয়ের রোষানলে । আর্ত ধরার এই প্রার্থনা শুন— শু্যামবনবীথি পাখিদের গীতি সার্থক হোক পুন। સ્વ: