পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ՀԵ রবীন্দ্র-রচনাবলী মৌলানা জিয়াউদ্দীন কখনো কখনো কোনো অবসরে निकट দাড়াতে এসে ; এই যে বলেই তাকাতেম মুখে, ‘বোসে বলিতাম হেসে । দু-চারটে হত সামান্ত কথা, ঘরের প্রশ্ন কিছু, গভীর হৃদয় নীরবে রহিত হাসিতামাশার পিছু। কত সে গভীর প্রেম সুনিবিড়, অকথিত কত বাণী, চিরকাল-তরে গিয়েছ যখন আজিকে সে কথা জানি । প্রতি দিবসের তুচ্ছ খেয়ালে সামান্ত যাওয়া-আসা, সেটুকু হারালে কতখানি যায় খুজে নাহি পাই ভাষা। তব জীবনের বহু সাধনার যে পণ্যভার ভরি মধ্যদিনের বাতাসে ভাসালে তোমার নবীন তরী, যেমনি ত হোক মনে জানি তার এতটা মূল্য নাই যার বিনিময়ে পাবে তব স্মৃতি আপন নিত্য ঠাই— সেই কথা স্মরি বার বার আজ লাগে ধিক্কার প্রাণে— অজানা জনের পরম মূল্য নাই কি গো কোনোখানে ।