পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সোনার তরী > 8 S) স্তন্ত্যতৃষ্ণা নষ্ট করি মাতৃবন্ধপাশ ছিন্ন করিবারে চাস কোন মুক্তিভ্রমে । গতি জানি আমি স্বখে দুঃখে হাসি ও ক্ৰন্দনে পরিপূর্ণ এ জীবন 5 কঠোর বন্ধনে ক্ষতচিহ্ন পড়ে যায় গ্রস্থিতে গ্রন্থিতে, জানি আমি সংসারের সমুদ্র মস্থিতে কারো ভাগ্যে স্থধা ওঠে, কারো হলাহল । জানি না কেন এ সব, কোন ফলাফল আছে এই বিশ্বব্যাপী কৰ্মশ্বস্থলার,— জানি না কী হবে পরে, সবি অন্ধকার আদি অস্ত এ সংসারে ; নিখিল দুঃখের অস্ত আছে কি না আছে, স্থখ-বুভুক্ষের মিটে কি না চির-অাশা ৷ পণ্ডিতের স্বারে চাহি না এ জনম-রহস্য জানিবারে । চাহি না ছিড়িতে এক বিশ্বব্যাপী ডোর, লক্ষকোটি প্রাণী সাথে এক গতি মোর । মুক্তি চক্ষু কৰ্ণ বুদ্ধি মন সব রুদ্ধ করি, বিমুখ হইয়া সর্ব জগতের পানে, শুদ্ধ আপনার ক্ষুদ্র আত্মাটিরে ধরি, মুক্তি-আশে সস্তরিব কোথায় কে জানে । পাশ্ব দিয়ে ভেসে যাবে বিশ্ব-মহাতরী অম্বর আকুল করি যাত্রীদের গানে, শুভ্র কিরণের পালে দশ দিক ভরি’, বিচিত্র সৌন্দর্বে পূর্ণ অসংখ্য পরানে ।