পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৮২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


> b8 छिंझांत्रणां । রবীন্দ্র-রচনাবলী সভয়বিস্ময়কণ্ঠে শুধাতু "কে তুমি ?” শুনিমু উত্তর “আমি পার্থ, কুরুবংশধর ।” রহিমু দাড়ায়ে চিত্র প্রায়, ভুলে গেমু প্রণাম করিতে । এই পার্থ ? আজন্মের বিস্ময় আমার ? শুনেছিছ বটে, সত্যপালনের তরে স্বাদশ বৎসর বনে বনে ব্রহ্মচর্য পালিছে অজুন। এই সেই পার্থবীর । বাল্য-দুরাশায় কত দিন করিয়াছি মনে, পার্থকীর্তি করিব নিম্প্রভ আমি নিজ ভুজবলে ; সাধিব অব্যর্থ লক্ষ্য ; পুরুষের ছদ্মবেশে মাগিব সংগ্রাম র্তার সাথে, বীরত্বের দিব পরিচয় । হা রে মুগ্ধে, কোথায় চলিয়া গেল সেই স্পধা তোর ! যে-ভূমিতে আছেন দাড়ায়ে সে-ভূমির তৃণদল হইতাম যদি, শৌর্যবীর্য যাহা কিছু ধুলায় মিলায়ে লভিতাম দুর্লভ মরণ, সেই তার চরণের তলে । কী ভাবিতেছিমু, মনে নাই । দেখিছু চাহিয়া, ধীরে চলি গেলা বীর বন-অন্তরালে । উঠিলু চমকি ; সেইক্ষণে জন্মিল চেতনা ; আপনারে দিলাম ধিক্কার শতবার। ছিছি মূঢ়ে, না করিলি সম্ভাষণ, না শুধালি কথা, না চাহিলি ক্ষমাভিক্ষা,— বর্বরের মতো রহিলি দাড়ায়ে— হেলা করি চলি গেলা বীর । বাচিতাম, সে-মুহূর্তে মরিতাম যদি ।