পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অজুন । চিত্রাঙ্গদা । অজুন । छिल्लांत्रणी । অজুন । চিত্রাঙ্গদা । চিত্রাঙ্গদ। श्रम्नेि बद्रॉईएन, সে অজুন, সে পাণ্ডব, সে গাওঁীবধস্থ, চরণে শরণাগত সেই ভাগ্যবান । নাম তার, খ্যাতি তার, শৌর্যবীর্য তার, মিথ্যা হোক, সত্য হোক, যে দুর্লভ লোকে করেছ তাহারে স্থান দান, সেথা হতে আর তারে করে না বিচ্যুত, ক্ষীণপুণ্য হৃতস্বর্গ হতভাগ্যসম । তুমি পার্থ ? আমি পার্থ, দেবী, তোমার হৃদয়দ্বারে প্রেমার্ত অতিথি । শুনেছিছু ব্রহ্মচর্য পালিছে আজুন দ্বাদশবরষব্যাপী । সেই বীর কামিনীরে করিছে কামনা ব্রত ভঙ্গ করি’ ! হে সন্ন্যাসী, তুমি পার্থ ! তুমি ভাঙিয়াছ ব্রত মোর । চন্দ্র উঠি যেমন নিমেষে ভেঙে দেয় নিশীথের যোগনিদ্রা-অন্ধকার । ধিক্‌, পার্থ, ধিক্ । কে আমি, কী আছে মোর, কী দেখেছ তুমি, কী জান আমারে । কার লাগি আপনারে হতেছ বিশ্বত । মুহূর্তেকে সত্য ভঙ্গ করি, আজু নেরে করিতেছ অনজুন কার তরে ? মোর তরে নহে। এই দুটি নীলোৎপল নয়নের তরে ; এই দুটি নবননিন্দিত বাহুপাশে সব্যসাচী অজুন দিয়াছে আসি ধরা, দুই হস্তে ছিন্ন করি সত্যের বন্ধন । কোথা গেল প্রেমের মর্যাদা ? কোথায় রহিল পড়ে নারীর সম্মান ? হায়, আমারে করিল ס\ף צ