পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৯৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বসন্ত । মদন । চিত্রাঙ্গদা । চিত্রাঙ্গদ। একটি প্রভাতে ফুটে অনন্ত জীবন, হে স্বন্দরী । ংগীতে যেমন, ক্ষণিকের তানে, গুঞ্জরি’ কাদিয়া ওঠে অন্তহীন কথা । তার পরে বলো । ভাবিতে ভাবিতে সর্বাঙ্গে হানিতেছিল ঘুমের হিল্লোল দক্ষিণের বায়ু । সপ্তপর্ণশাখা হতে ফুল্ল মালতীর লতা আলস্য-আবেশে মোর গৌরতনু’পরে পাঠাইতেছিল নিঃশব্দ চুম্বন ; ফুলগুলি কেহ চুলে, কেহ পদতলে, কেহ স্তনতটমূলে বিছাইল আপনার মরণ-শয়ন। অচেতনে গেল কত ক্ষণ । হেনকালে ঘুমঘোরে কখন করিস্থ অনুভব যেন কার মুগ্ধ নয়নের দৃষ্টিপাত দশ অঙ্গুলির মতো পরশ করিছে রভস-লালসে মোর নিদ্রালস তচু । চমকি উঠিমু জাগি । দেখিন্থ, সন্ন্যাসী পদপ্রাস্তে নিনিমেষ দাড়ায়ে রয়েছে স্থির প্রতিমূৰ্তিসম। পূর্বাচল হতে ধীরে ধীরে সরে এসে পশ্চিমে হেলিয়া দ্বাদশীর শশী, সমস্ত হিমাংশুরাশি দিয়াছে ঢালিয়া, স্থলিতবসন মোর অমাননুতন শুভ্র সৌন্দর্ধের পরে । পুষ্পগন্ধে পূর্ণ তরুতল ; ঝিল্লিরবে তন্দ্রামগ্ন নিশীথিনী ; স্বচ্ছ সরোবরে অকম্পিত চন্দ্রকরচ্ছায়া ; স্থপ্ত বায়ু; ›ግግ