পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SS\లి রবীন্দ্র-রচনাবলী বুঝিতে পারিনে আমি রহস্য তোমার। এতদিন আছি, তবু যেন পাইনি সন্ধান । তুমি যেন বঞ্চিত করিছ মোরে গুপ্ত থেকে সদা ; তুমি যেন দেবীর মতন, প্রতিমার অন্তরালে থেকে আমারে করিছ দান অমূল্য চুম্বন-রত্ন, আলিঙ্গন-স্বধা ; নিজে কিছু চাহ না, লহ না । অঙ্গহীন ছন্দোহীন প্রেম প্রতিক্ষণে পরিতাপ জাগায় অন্তরে । তেজস্বিনী, পরিচয় পাই তব মাঝে মাঝে কথায় কথায় । তার কাছে এ সৌন্দর্যরাশি, মনে হয় মৃতিকার মূতি শুধু নিপুণচিত্রিত শিল্প-যবনিকা । মাঝে মাঝে মনে হয় তোমারে তোমার রূপ ধারণ করিতে পারিছে না আর, কঁাপিতেছে টলমল করি। নিত্যদীপ্ত হাসির অন্তরে ভরা অশ্র করিতেছে বাস, মাঝে মাঝে ছলছল করে ওঠে, মুহূর্তের মাঝে ফাটিয়া পড়িবে যেন আবরণ টুটি । সাধকের কাছে, প্রথমেতে ভ্রান্তি আসে মনোহর মায়া-কায়া ধরি ; তার পরে সত্য দেখা দেয়, ভূষণবিহীন রূপে আলো করি অন্তর বাহির । সেই সত্য কোথা আছে তোমার মাঝারে, দাও তারে । আমার যে-সত্য তাই লও। শ্রাস্তিহীন সে-মিলন চিরদিবসের — অশ্র কেন প্রিয়ে। বাছতে লুকায়ে মুখ কেন এই ব্যাকুলত । বেদন দিয়েছি প্রিয়তমে ? তবে থাক, তবে থাক। ওই মনোহর