পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৯৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গোড়ায় গলদ * ९१७ নিবারণের প্রবেশ শিবচরণ। অারে এসো ভাই এসে । নিবারণ। ভালো আছ ভাই ? যা হোক শিবু, কথা তো স্থির ? শিবচরণ। সে তো বরাবরই স্থির আছে, এখন তোমার মর্জি হলেই হয় । নিবারণ। আমারও তো সমস্ত ঠিক হয়ে আছে, এখন হয়ে গেলেই চুকে যায়। শিবচরণ। তবে আর কী, দিনক্ষণ দেখে— 穩 নিবারণ। সে-সব কথা পরে হবে—এখন কিছু মিষ্টিমুখ করবে চলো । শিবচরণ। না ভাই, এখন আমার খাওয়াটা অভ্যাস নেই, এখন থাক—অসময়ে খেয়েছি কি, আর আমার মাথা ধরেছে— নিবারণ। না না, সে হবে না, কিছু খেতে হচ্ছে । বাপু, তুমিও এসো । তৃতীয় দৃশ্য কমলমুখীর অন্তঃপুর কমলমুখী ও ইন্দুমতী কমলমুখী। ছি ছি, ইন্দু, তুষ্ট কী কাগুটাই করলি বল দেখি । ইন্দুমতী। তা বেশ করেছি। ভাই, পরে গোল বাধার চেয়ে আগে গোল চুকে যাওয়া ভালো। কমলমুখী। এখন পুরুষজাতটাকে কী রকম লাগছে । ইন্দুমতী । মন্দ না ভাই, একরকম চলনসই। কমলমুখী । তুই যে বলেছিলি ইন্দু, নিমাই গয়লাকে তুই ককখনো বিয়ে করবিনে । ইন্দুমতী। না ভাই, নিমাই নামটি খারাপ নয় তা তোমরা যাই বল। তোমার নলিনীকান্ত, ললনামোহন, রমণীরঞ্জনের চেয়ে সহস্র গুণে ভালো । নিমাই নামটি খুব আদরের নাম, অথচ পুরুষমাতুষকে বেশ মানায়। রাগ করিসনে দিদি, তোর বিনোদের চেয়ে ঢের ভালো— কমলমুখী। কী হিসেবে ভালো শুনি । ইন্দুমতী । বিনোদবিহারী নামটা যেন টাটকা নভেল-নাটক থেকে পেড়ে এনেছে—বডেড বেশি গায়ে-পড়া কবিত্ব । মানুষের চেয়ে নামটা জঁাকালে । আর,