পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


& S 3 রবীন্দ্র-রচনাবলী শক্তি বিশেষ-বিশেষ স্থানে পুত্রীভূত হইয়া উহাদের জন্য অপেক্ষা করে। যে-শক্তি আপাতত ৰোগ্য লোকের অভাবে কাজে লাগিল না, সে-শক্তি যদি সমাজে কোথাও রক্ষিত হইবার স্থানও না পায়, তবে সে সমাজ ফুট। কলসের মতো শূন্ত হইয়া যায় । আমি যে সমাজপতির কথা বলিতেছি, তিনি সকল সময়ে যোগ্য লোক না হক্টলেও সমাজের শক্তি সমাজের আত্মচেতনা তাহাকে অবলম্বন করিয়া ৰিপ্লুত হষ্টয়া থাকিবে । অবশেষে বিধাতার আশীর্বাদে এই শক্তিসঞ্চয়ের সহিত যখন যোগ্যতার যোগ হইবে, তখন দেশের মঙ্গল দেখিতে দেখিতে আশ্চর্ধবলে আপনাকে সর্বত্র বিস্তীর্ণ করিবে । আমরা ক্ষুদ্র দোকানির মতো সমস্ত লাভলোকসানের হিসাব হাতে হাতে দেখিতে চাই– কিন্তু বড়ো ব্যাপারের হিসাব তেমন করিয়া মেলে না । দেশে এক-একটা বড়ো দিন আসে, সেই দিন বড়ো লোকের তলবে দেশের সমস্ত সালতামামি নিকাশ বড়ো খাতায় প্রস্তুত হইয়া দেখা দেয়। রাজচক্রবর্তী অশোকের সময়ে একবার বৌদ্ধসমাজের হিসাব তৈরি হইয়াছিল । আপাতত আমাদের কাজ-দপ্তর তৈরি রাখা, কাজ চালাইতে থাকা ; যেদিন মহাপুরুষ হিসাব তলব করিবেন, সেদিন অপ্রস্তুত হইয়া শির নত করিব না— দেখাইতে পারিব, জমার ঘরে একেবারে শূন্ত নাই । সমাজের সকলের চেয়ে যাহাকে বড়ো করিব, এতবড়ো লোক চাহিলেই পাওয়৷ যায় না। বস্তুত রাজা তাহার সকল প্রজারই চেয়ে যে স্বভাবত বড়ো, তাহা নহে । কিন্তু রাজ্যই রাজাকে বড়ো করে । জাপানের মিকাডো জাপানের সমস্ত স্বধী, সমস্ত সাধক, সমস্ত শূরবীরদের দ্বারাই বড়ো। আমাদের সমাজপতিও সমাজের মহবেষ্ট মহৎ হইতে থাকিবেন । সমাজের সমস্ত বড়ো লোকই তাহাকে বড়ো করিয়া তুলিবে । মন্দিরের মাথায় যে স্বর্ণকলস থাকে, তাহা নিজে উচ্চ নহে— মন্দিরের উচ্চতাই তাহাকে উচ্চ করে । আমি ইহা বেশ বুঝিতেছি, আমার এই প্রস্তাব যদি বা অনেকে অনুকূলভাবেও গ্রহণ করেন, তথাপি ইহা অবাধে কার্যে পরিণত হইতে পারিবে না। এমন কি, প্রস্তাবকারীর অযোগ্যতা ও অন্যান্য বহুবিধ প্রাসঙ্গিক ও অপ্রাসঙ্গিক দোষত্রুটি ও স্বলন সম্বন্ধে অনেক স্পষ্ট স্পষ্ট কথা এবং অনেক অস্পষ্ট আভাস আজ হইতে প্রচার হইতে থাকা আশ্চর্য নহে । আমার বিনীত নিবেদন এই যে, আমাকে আপনার ক্ষমা করিবেন । আদ্যকার সভামধ্যে আমি আত্মপ্রচার করিতে আসি নাই, এ-কথা বলিলেও পাছে অহংকার প্রকাশ করা হয়, এ-জন্ত আমি কুষ্ঠিত আছি । আমি অদ্য যাহা বলিতেছি, আমার সমস্ত দেশ আমাকে তাহা বলাইতে উদ্যত