পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তালদণ্ডা খাল পাণ্ডুয়া হইতে কটকের ২২ ফাল্গুন, ১২৯৯ সোনার তরী সে কহিল দেখে দেখে, “চিনিনে কিছু।” শুনি রহিলাম শির করিয়া নিচু। ভাবিলাম, সারাদিন সারাটি বেলা বসে বসে করিয়াছি কী ছেলেখেলা । না জানি কী মোহে ভুলে গেছু অকুলের কূলে, ঝাপ দিমু কুতূহলে, আনিছু মেলা । অজানা সাগর হতে অজানা ঢেলা ৷ যুঝি নাই, খুজি নাই হাটের মাঝে, এমন হেলার ধন দেওয়া কি সাজে । কোনো দুখ নাহি যার, কোনো তৃষা বাসনার, এ-সব লাগিবে তার কিসের কাজে । কুড়ায়ে লইনু পুন মনের লাজে । সারাটি রজনী বসি দুয়ার-দেশে একে একে ফেলে দিকু পথের শেষে । সুখহীন ধনহীন চলে গেছু উদাসীন, প্রভাতে পরের দিন পথিকে এসে সব তুলে নিয়ে গেল আপন দেশে । পথে ৭৯