পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ত্রয়োবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী শিশুদিনের প্রথম হাসি মধুর হয়ে মেলে— চেয়ে দেখি সকল কর্ম ফেলে । জাড়ের হাওয়ায় ফুলিয়ে ভtল। একটুকু মুখ ঢেকে অতিথিরা থেকে থেকে লালচে-কালো সাদা রঙের পরিচ্ছন্ন বেশে 曦 দেখা দিচ্ছে এসে । থানিক পরেই একে একে জোটে পায়রাগুলো, বুক ফুলিয়ে হেলে-ছলে খুটে খুটে ধুলো থায় ছড়ানো ধান । ওদের সঙ্গে শালিখদলের পঙক্তি-ব্যবধান একটুমাত্র নেই । পরস্পরে একসমানেই ব্যস্ত পায়ে বেড়ায় প্রাতরাশে । মাঝে-মাঝে কী অকণরণ ত্রা সে ত্রস্ত পাখা মেলে এক মুহূর্তে যায় উড়ে ধান ফেলে । অাবার ফিরে আসে অহেতু আশ্বাসে । এমনসময় অাসে কাকের দল, খাদ্যকণায় ঠোকর মেরে দেখে কী হয় ফল । একটুখানি যাচ্ছে সরে আসছে আৰfর কাছে, উড়ে গিয়ে বসছে তেঁতুলগাছে । বাকিয়ে গ্রীবা ভাবছে বারংবার, নিরাপদের সীমা কোথায় তার । এবার মনে হয়, এতক্ষণে পরম্পরের ভাঙল সমস্বয় |