পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ত্রয়োবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


टप्रांकां* 2iर्नेौ*ां সেই নাম থেকে থেকে ফিরে ফিরে তোমারে গুঞ্জন করি ঘিরে

  • চারিদিকে, ধ্বনিলিপি দিয়ে তার বিদায়স্বাক্ষর দেয় লিখে ।

তুমি যেন রজনীর জ্যোতিষ্কের শেষ পরিচয় শুকতারা, তোমার উদয় আস্তের খেয়ায় চ’ড়ে আসা, মিলনের সাথে বহি বিদায়ের ভাষা । ভাই বসে একা প্রথম দেখার ছন্দে ভরি লই সব-শেয দেখা । সেই দেখা মম পরিস্ফুটতম । বসস্তের শেষমাসে শেষ শুক্লতিথি তুমি এলে তাহার অতিথি, উজাড় করিয়া শেষ দানে ভাবের দাক্ষিণ্য মোর অন্ত নাহি জানে । ফাত্তনের অতিতৃপ্তি ক্লাস্ত হয়ে যায়, চৈত্রে সে বিরলরসে নিবিড়তা পায়, চৈত্রের সে ঘন দিন তোমার লাবণ্যে মূর্তি ধরে ; মিলে ষায় সরিঙের বৈরাগ্যরাগের শাস্তস্বরে, প্রৌঢ় যৌবনের পূর্ণ পর্যাপ্ত মহিমা লাভ করে গৌরবের সীমা । হয়তো এ-সব ৰ্যাখ্যা স্বপ্ল-অন্তে চিস্তা করে বল, দাম্ভিক বুদ্ধিরে শুধু ছলা— বুঝি এর কোনো অর্থ নাইকো কিছুই । জ্যৈষ্ঠ-অবসানদিনে আকস্মিক জুই যেমন চমকি জেগে উঠে সেইমতো অকারণে উঠেছিল ফুটে, > >●