পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ত্রয়োবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভাগের দেশ فة ذ ধরি টিপে টুটি, মুখে মারি মুঠি, বলে দেখি কী আরাম পাচ্ছ । ছক্কা । ওহে ভাই পঞ্জ, একেবারে অসবর্ণ। কী জাতি তোমরা। সদাগর। আমরা নাশক, নাসা থেকে উৎপন্ন । পঞ্জা । কোনো উচ্চবংশীয় জাতির অমনতরো নাম তো শুনি নি । সদাগর। হাইয়ের বাম্পে তোমরা উড়ে গেছ উচ্চে, পরলোকের পারে ; হাচির চোটে আমরা পড়েছি নিচে, এই ইহলোকের ধারে । ছক্কা। পিতামহের নালিকার অসংঘমবশতই তোমরা এমন অদ্ভূত। রাজপুত্র। এতক্ষণে ঠিক কথাটাই বেরিয়েছে তোমার মুখ থেকে, আমরা অদ্ভুত। গান আমরা নূতন যৌবনেরই দূত, चाभद्रा कक्षल, बायब्रा बडूठ । আমরা বেড়া ভাঙি, আমরা অশোকবনের রাঙা নেশায় রাঙি, ঝঞ্চার বন্ধন ছিন্ন করে দিই, আমরা বিদ্যুং । चांभद्र कवि डूण । অগাধ জলে ঝাপ দিয়ে যুঝিয়ে পাই কুল । যেখানে ডাক পড়ে জীবন-মরণ-ঝড়ে আমরা প্রস্তুত ৷ ছক-পঞ্জা । ( পরম্পর মুখ চেয়ে ) এ চলবে না, এ চলবে না। রাজপুত্র। যা চলবে না তাকেই আমরা চালাই । इको । किरू, निम्नय ! 函 রাজপুত্র। বেড়ার নিয়ম ভাঙলেই পথের নিয়ম আপনিই বেরিয়ে পড়ে, নইলে এগোব কী করে। পঞ্চ। ওরে ভাই, কী বলে এরা। এগোৰে ! অমানমুখে ব’লে বলল, এগোব।