পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ত্রয়োবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তাসের দেশ ^3) ছক্কা-পঞ্জা । গান সেই তো ভাঙছে, সেই তো গড়ছে, সেই তো দিচ্ছে নিচ্ছে । সেই তো আঘাত করছে তালায়, সেই তো বাধন ছি ড়ে পালায়, বাধন পরতে সেই তো আবার ফিরছে । রাজা । যাও, যাও, এখান থেকে চলে যাও, শীঘ্ৰ চলে ৰাও । হরতনী, কানে পৌছল না কথাটা ? চি ড়েতনী, দেখছ ওর ব্যবহারটা ? হঠাৎ এমন হল কেন । হরতনী। ইচ্ছে । অন্য টেক্কার। ইচ্ছে । রাজা । ও কী রানীবিবি, তাড়াতাড়ি উঠে পড়লে যে । রানী। আর বসে থাকতে পারছি নে । রাজা। রানীবিবি, সন্দেহ হচ্ছে, তোমার মন বিচলিত হয়েছে । রানী । সন্দেহ নেই, বিচলিত হয়েছে। রাজা। জান ? চাঞ্চল্য তাসের দেশে সব চেয়ে বড়ো অপরাধ । রানী । জানি, আর এও জানি, এই অপরাধটাই সব চেয়ে বড়ো সম্ভোগের জিনিস । রাজা। শাস্তির জিনিসকে তুমি বললে ভোগের জিনিস, তালের দেশের ভাষাও ভূলে গেছ ? রানী । আমাদের তালের দেশের ভাষায় শিকলকে বলে অলংকার, এ ভাষা ভোলবার সময় এসেছে । রুইতন । ই বিবিরানী, এদের ভাষায় জেলখানাকে বলে শ্বশুরবাড়ি । রাজা। চুপ। হরতনী । এরা হেঁয়ালিকে বলে শাস্তর। রাজা। চুপ। হরতনী । বোবাকে বলে সাধু । রাজা। চুপ । হরতনী। বোকাকে বলে পণ্ডিত ।