পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ত্রয়োবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


૨૨ রবীন্দ্র-রচনাবলী এ তো বড়ো রঙ্গ, জাস্থ, এ তো বড়ো রঙ্গ— চার সাদা দেখাতে পার যাব তোমার সঙ্গ । ক্ষীর সাদা, নবনী সাদা, সাদা মালাই রাবড়ি— তাহার অধিক সাদা তোমার পষ্ট ভাষার দাবড়ি । এ তো বড়ো রঙ্গ, জাদু, এ তো বড়ো রঙ্গ— চার তিতে দেখাতে পার যাব তোমার সঙ্গ । উচ্ছে তিতো, পলতা তিতে, তিতে নিমের স্বত্ততাহার অধিক তিতে যাহা বিনি ভাষায় উক্ত । এ তো বড়ো রঙ্গ, জাদু, এ তো বড়ো রঙ্গ – চার কঠিন দেখাতে পার যাব তোমার সঙ্গ । লোহা কঠিন, বজ্র কঠিন, নাগরা জুতোর তলা— তাহার অধিক কঠিন তোমার বাপের বাড়ি চলা । এ তে বড়ো রঙ্গ, জাদু, এ তো বড়ো রঙ্গ— চার মিথ্যে দেখাতে পার যাব তোমার সঙ্গ । মিথ্যে ভেলকি, ভূতের হচি, মিথ্যে র্কাচের পাল্লা— তাহার অধিক মিথ্যে তোমার নাকি স্বরের কান্না । পরিণয়মঙ্গল তোমাদের বিয়ে হল ফাগুনের চেীঠ, অক্ষয় হয়ে থাকু সি দুরের কেীট। । সাত চড়ে তবু যেন কথা মুখে না ফোটে, নাসিকার ডগা ছেড়ে ঘোমটাও না শুঠে ; শাশুড়ি ন বলে যেন ‘কী বেহায় বেীট’ ।