পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ত্রয়োবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী পূর্ব যুগে অশোক গাছে নারীর চরণ লেগে ফুল উঠিত জেগে— কলিযুগে লেখনীরে সম্পাদকের তাড়া নিত্যই দেয় নাড়া, ধাক্কা খেয়ে যে জিনিসটা ফোটে খাতার পাতে তুলনা কি হয় কতু তার অশোকফুলের সাথে । দিনের পরে দিন কেটে যায় গুনগুনিয়ে গেয়ে শীতের রৌদ্রে মাঠের পানে চেয়ে । ফিকে রঙের নীল আকাশে অতিপ্ত সমীরে আমার ভাবের বাষ্প উঠে ভেসে বেড়ায় ধীরে, মনের কোণে রচে মেঘের স্ত,প, নাই কোনো তার রূপ— মিলিয়ে যায় সে এলোমেলো নানান ভাবনাতে, মিলিয়ে যায় সে কুয়েঞ্জর ধারে শজনেগুচ্ছ-সাথে । এদিকে যে লেখনী মোর একলা বিরহিণী ; দৈবে যদি কবি হতেন তিনি, বিরহ তার পদ্যে বানিয়ে নিচের Lলথার ছাদে আমায় দিতেন জানিয়ে— বিনয়সহ এই নিবেদন অঙ্গুলিচম্পাস্ক, নালিশ জানাই কবির কাছে, জবাবট চাই আণ্ড