পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ত্রয়োবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৭০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সাহিত্যের পথে 86.2 মাহুৰ আপন হাতে আপনাকে, আপন সংসারকে তৈরি করে, সেই সংসারের ছবি বানায় আপন হাতে— তাতে তাকে নিবিড় আনন্দ দেয়, কেননা সেই ছবি তার মনের নিতান্ত কাছে আসে। যে-শকুন্তলার ঘটনা মানবসংসারে ঘটতে পারে তাকেই কৰি আমাদের মনের কাছে নিবিড়তর সত্য ক’রে দেখিয়ে দেন। রামায়ণ রচিত হল, রচিত হল মহাভারত। রামকে পেলুম ; সে তো একটি মাত্র মানুষের রূপ নয়, অনেক কাল থেকে অনেক মানুষের মধ্যে যে-সকল বিশেষ গুণের ক্ষণে ক্ষণে কিছু কিছু স্বাদ পাওয়া গেছে কবির মনে সে-সমস্তই দানা বেঁধে উঠল রামচন্দ্রের মূর্তিতে। রামচন্দ্র হয়ে উঠলেন আমাদের মনের মাছুষ । বাস্তব সংসারে অনেক বিক্ষিপ্ত ভালো লোকের চেয়ে রামচজ আমাদের মনের কাছে সত্যমানুষ হয়ে ওঠেন । মন তাকে যেমন ক’রে স্বীকার করে প্রত্যক্ষ হাজার হাজার লোককে তেমন ক’রে স্বীকার করে না। মনের মাস্থ্য বলতে ৰে বুঝতে হবে আদর্শ ভালো লোক তা নয়। সংসারে মন্দ লোকও আছে ছড়িয়ে, নানা-কিছুর সঙ্গে মিশিয়ে ; আমাদের পাঁচ-মিশোলি অভিজ্ঞতার মধ্যে BBB DDB BBBBDD DDD DDDS DDDS BB DD BBB DDDD DBBD DD DDS পরিচয় সংসারে আমাদের কাছে ক্ষণে ক্ষণে এলে পড়ে ; তারা আসে, তারা যায়, তারা আঘাত করে, নানা ঘটনায় চাপা পড়ে তারা অগোচর হতে থাকে। সাহিত্যে তারা সংহত আকারে ঐক্য লাভ করে আমাদের নিত্যমনের সামগ্রী হয়ে ওঠে ; তখন তাদের আর ভুলতে পারি নে। শেক্সপীয়রের রচিত ফলস্টাফ একটি বিশিষ্ট মানুষ সন্দেহ নেই। তবু বলতে হবে, আমাদের অভিজ্ঞতায় অনেক মানুষের কিছু কিছু আভাস আছে, শেক্সপীয়রের প্রতিভার গুণে তাদের সমবায় ঘনীভূত হয়েছে ফলস্টাফ, চরিত্রে। জোড়া লাগিয়ে তৈরি নয়, কল্পনার রসে জারিত ক’রে তার স্থষ্টি ; তার সঙ্গে আমাদের মনের মিল খুব সহজ, এইজন্তে তাতে আমাদের আনন্দ । এমন কথা মনে হতে পারে, সাবেক কালের কাব্য-নাটকে আমরা যাদের দেখতে পাই তারা এক-একটা টাইপ, তারা শ্রেণীগত ; তাই তারা একই-জাতীয় অনেকগুলি মানুষের ভাঙাচোরা উপকরণ নিয়ে তৈরি। কিন্তু, আধুনিক কালে সাহিত্যে আমরা বে-চরিত্র দেখি তা ব্যক্তিগত । প্রথম কথা এই ষে, ব্যক্তিগত মানুষেরও শ্রেণীগত ভিত্তি আছে, একান্ত শ্রেণীবিচ্ছিন্ন प्राकृष्य cनहे । eथtठाक प्रांश्वब बाषाई जां८छ् बए बांग्लश्य, श्रांद्ध cगहे नरकहे जज्जिङ हटब्र আছে সেই এক মানুষ ৰে বিশেষ। চরিত্রস্থটিতে শ্রেণীকে লঘু ক'রে ব্যক্তিৰেই যদিবা প্রাধান্ত দিই তৰু সেই ব্যক্তিকে আমাদের ধারণার সম্পূর্ণ অধিগম্য করতে হলে তাতে জার্টিস্টের হাত পড়া চাই। এই আর্টিস্টের স্বষ্টি প্রকৃতির স্বষ্টির ধারা অনুসরণ করে না।