পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৪৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>२४ রবীন্দ্র-রচনাবলী ও বোধ হয় চোখে দেখতে পায় না বলেই ভয় করে না । বাউল। না গো, আমি কেন ভয় করি নে বলি। একদিন আমার দৃষ্টি ছিল। যখন অন্ধ হলুম ভয় হল দৃষ্টি বুঝি হারালুম। কিন্তু চোখওয়ালার দৃষ্টি অন্ত যেতেই অন্ধের দৃষ্টির উদয় হল। স্বর্য যখন গেল তখন দেখি অন্ধকারের বুকের মধ্যে আলো । সেই অবধি অন্ধকারকে আমার আর ভয় নেই। তা হলে এখন চলো। ওই তো সন্ধ্যাতারা উঠেছে। বাউল। আমি গান গাইতে গাইতে যাই, তোমরা আমার পিছনে পিছনে এসে। গান না গাইলে আমি রাস্ত পাই নে। সে কী কথা হে। বাউল। আমার গান আমাকে ছাড়িয়ে যায়— সে এগিয়ে চলে, আমি পিছনে চলি । " গান ধীরে বন্ধু ধীরে ধীরে চলো তোমার বিজন মন্দিরে । জানি নে পথ, নাই যে অালো, ভিতর বাহির কালোয় কালো, তোমার চরণশব্দ বরণ করেছি আজ এই অরণ্যগভীরে । ধীরে বন্ধু ধীরে ধীরে । চলো অন্ধকারের তীরে তীরে । চলব আমি নিশীথরাতে তোমার হাওয়ার ইশারাতে, তোমার বসনগন্ধ বরণ করেছি আজ এই বসন্তসমীরে ॥