পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>○8 রবীন্দ্র-রচনাবলী চাচ্ছে যা আমাদের আপনার মধ্যে আপনার কাছ থেকেও লুকিয়ে আছে। ও যে কিছু পায় কিছু পায় না, এইজন্যেই ওর কান্না । পেতে পেতেই সব হারিয়ে যায় । ওগো পৃথিবী, তোমাকে আমরা ফাকি দেব না। গান আমি যাব না গে। অমনি চলে । মালা তোমার দেব গলে । অনেক সুখে অনেক দুখে তোমার বাণী নিলেম বুকে, ফাগুন শেষে যাবার বেলা আমার বাণী যাব বলে । কিছু হল, অনেক বাকি ; ক্ষমা অামায় করবে না কি । গান এসেছে স্থর আসে নাই হল না যে শোনানো তাই, সে-সুর আমার রইল ঢাকা নয়নজলে নয়নজলে ॥ ও ভাই, কে যেন গেল বোধ হচ্ছে । আরে, গেল গেল গেল, এ ছাড়া আর তো কিছুই বোধ হচ্ছে না। আমার গায়ের উপর কোন পথিকের কাপড় ঠেকে গেল । । নিয়ে চলে পথিক, নিয়ে চলে তোমার সঙ্গে, হাওয়া যেমন ফুলের গন্ধ নিয়ে যায়। কাকে ধরে আনবার জন্যে বেরিয়েছিলুম কিন্তু ধরা দেবার জন্যেই মন আকুল হল । বাউলের প্রবেশ এই যে আমাদের বাউল । আমাদের এ কোথায় এনেছ, এখানে সমস্ত পথিক জগতের নিশ্বাস আমাদের গায়ে লাগছে— সমস্ত তারাগুলোর । আমরা খেলাচ্ছলে বেরিয়েছিলুম কিন্তু খেলাটা যে কী তা ভুলেই গেছি। আমরা তাকেই ধরতে বেরিয়েছিলুম পৃথিবীর মধ্যে ধে বুড়ে।